বেসরকারি হাসপাতাল-ক্লিনিকের জন্য আসছে নতুন আইন

গাড়ি পাবেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা

প্রকাশ : ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১২:৫৮

সংসদ প্রতিবেদক

সামরিক শাসনামলে জারিকৃত অধ্যাদেশ বলে প্রণীত ৩৬ বছরের পুরনো নীতিমালার আওতায় চলছে দেশের সব বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার। দ্য মেডিক্যাল প্র্যাকটিস অ্যান্ড প্রাইভেট ক্লিনিকস অ্যান্ড ল্যাবরেটরিস রেজল্যুশন (অধ্যাদেশ) নামের এ নীতিমালাটি রহিত করে নতুন আইন প্রণয়নের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

জাতীয় সংসদকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম সোমবার এ তথ্য জানান। একই দিনে মন্ত্রী জানান, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাদের জন্য গাড়ি কিনছে সরকার।

স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য মো. রুস্তম আলী ফরাজীর প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ১৯৮২ সালের দ্য মেডিক্যাল প্র্যাকটিস অ্যান্ড প্রাইভেট ক্লিনিকস অ্যান্ড ল্যাবরেটরিস রেজল্যুশন (অধ্যাদেশ) রহিতক্রমে একটি যুগোপযোগী আইন প্রণয়নের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। মন্ত্রী আরো জানান, ওই নীতিমালা অনুযায়ী গঠিত কমিটির মাধ্যমেই স্বাস্থ্যসেবার সঙ্গে জড়িত প্রতিষ্ঠানগুলোকে ‘লাইসেন্স’ (নিবন্ধন) দেওয়া হয়।

বিরোধীদলীয় সদস্য এ কে এম মাঈদুল ইসলামের প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, উপজেলা পর্যায়ের স্বাস্থ্যসেবা গতিশীল করতে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাদের গাড়ি দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। বর্তমানে ক্রয় কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন আছে।

সরকারি দলের রহিম উল্লাহর প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী আরও জানান, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে ডাক্তার, নার্সসহ সব কর্মকর্তা-কর্মচারীর উপস্থিতি নিশ্চিত করতে ইতোমধ্যে ৪১৪ উপজেলায় ডিজিটাল হাজিরা চালু করা হয়েছে।

সরকারদলীয় অপর সদস্য মাহফুজুর রহমানের প্রশ্নের জবাবে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, প্রতিবছর আমাদের দেশ থেকে চিকিৎসার জন্য কিছু রোগী বিদেশে চলে যায়-কথাটি সত্য। এ প্রবণতা রোধকল্পে আমাদের দেশে উপজেলা হাসপাতাল থেকে শুরু করে জেলা ও তদূর্ধ্ব পর্যায়ের হাসপাতালগুলোকে আধুনিক যন্ত্রপাতি সংযোজনের মাধ্যমে উন্নত চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হচ্ছে।

তাছাড়া সব মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ও বিশেষায়িত হাসপাতালকে আধুনিকায়ন করা হচ্ছে। ওই হাসপাতালগুলোয় আন্তর্জাতিক মানের চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হচ্ছে।

পিডিএসও/তাজ