ত্বকের পরিচর্যায় ডিম

প্রকাশ : ১৯ মার্চ ২০১৯, ২১:৩৩

অনলাইন ডেস্ক

অনেকের হয়তো জানা নেই, ডিমের সাদা অংশে থাকা ভিটামিন এবং খনিজ উপাদান ত্বক পরিচর্যায় দারুন কাজ করে। তৈলাক্ত ত্বক, মুখের অবাঞ্ছিত লোম বা ব্রণের সমস্যা দূর করতে এটি কাজে লাগতে পারেন। ত্বকের যত্নে যেভাবে ডিম কাজে লাগাবেন।

ত্বকের তৈলাক্ততা দূর :  তৈলাক্ত ত্বকে সাধারণত ব্রণ, ব্ল্যাক হেডস, কালচে ছোপসহ নানা ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। ডিমের সাদা অংশ ব্যবহার করলে অত্যাধিক তৈলাক্ত ত্বকের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যেতে পারে।

এজন্য প্রথমে হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ভাল করে ধুয়ে ফেলুন। এ বার ডিমের সাদা অংশ পাতলা করে মুখে প্রলেপ দিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। প্রলেপ শুকিয়ে গেলে, ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখটা ধুয়ে ফেলুন। আলতোভাবে মুখটা মুছে ফেলুন। নিয়মিত এটি ব্যবহার করলে তৈলাক্ত ত্বকের সমস্যা অনেকটা কমে যাবে।

অবাঞ্ছিত লোম অপসারণ : মুখের ত্বকের অতিরিক্ত লোম নিয়ে অনেকেই সমস্যায় ভোগেন। বিশেষ করে নারীদের জন্য এটা একটা বড় সমস্যা।এ কারণে অনেকেই বিউটি পার্লারে গিয়ে থ্রেডিং করে থাকেন। ডিমের সাদা অংশ ব্যবহার করেও মুখের ক্ষুদ্র অবাঞ্ছিত লোম দূর করা সম্ভব। সাধারণত গাল, কপাল বা ঠোঁটের উপরের অংশে অবাঞ্ছিত লোমের আধিক্য দেখা যায়।

এজন্য প্রথমে একটি ব্রাশ দিয়ে ডিমের সাদা অংশ পাতলা করে মুখে মেখে নিন। শুকিয়ে গেলে আরও একবার মাখুন। এই ভাবে ২-৩ বার করে ডিমের সাদা অংশ মেখে মাস্ক তৈরি করে কিছুক্ষণ রেখে দিন। ওই প্রলেপ সম্পূর্ণ শুকিয়ে গেলে, শুকনো চামড়ার মতো করে টেনে তুলে ফেলুন। এতে মুখের অবাঞ্জিত লোম অনেকটাই দূর হবে।

ব্রণ-ফুসকুড়ির সমস্যা : পরিষ্কার আঙুলের ডগা দিয়ে আলতো ভাবে ব্রণ আক্রান্ত অংশগুলিতে ডিমের সাদা অংশের প্রলেপ লাগান। দ্রুত ভাল ফল পেতে এর সঙ্গে টক দই, দারুচিনির গুঁড়া বা হলুদ যোগ করতে পারেন । এতে ব্রণের সমস্যা সহজেই কেটে যাবে।

পিডিএসও/তাজ