সাজ পোশাকে বর্ণিল কামিজ

প্রকাশ : ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২০:২০ | আপডেট : ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২১:৩৬

ফ্যাশন ডেস্ক

বাঙালি নারীর সাজ পোশাকে এখন অনেক বৈচিত্র্য। একসময় শাড়ি ও সাধারণ কামিজে অভ্যস্ত বাঙালি তরুণীদের ফ্যাশন ট্রেন্ডে যোগ হয়েছে লং কামিজ ও সেমি লং কামিজ। এমনকি পছন্দের তালিকায় সিঙ্গেল কামিজও বেশ ভালোভাবেই জায়গা করে নিয়েছে। যাদের প্রতিনিয়তই নানা ধরনের কাজের জন্য বাইরে যেতে হয়, তাদের কাছে সিঙ্গেল কামিজের চাহিদা একটু বেশি।

ঢিলেঢালা আর আরামদায়ক করে তৈরি করা হয় বলে কামিজের চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলেছে। তবে লং প্যাটার্নের কামিজও পিছিয়ে নেই। বর্তমান ফ্যাশনের ধারা বজায় রেখে কামিজগুলোকে লম্বা করা হচ্ছে। এগুলো লং হাতারও হয় আবার স্লিভলেসও পাওয়া যায়।

সিঙ্গেল কামিজ : কামিজের ক্ষেত্রে থ্রি কোয়ার্টার, স্লিভলেস লং কামিজ টিনএজার ও তরুণীদের ভালো মানায়। কুর্তা স্টাইলের লম্বা সিঙ্গেল কামিজ এখনকার যুগের সঙ্গে মানানসই। ফ্যাশনের পরিবর্তনের সঙ্গে মিল রেখে প্রতিটি ফ্যাশন হাউসে কুর্তা ও কামিজের কাটিং প্যাটার্নে পরিবর্তন আনা হয়েছে। কামিজের কাটিং, কলার, লে-আউট, ছাপা, বুটিক, বাটিক, লেস ও এমব্রয়ডারি ব্যবহারসহ প্রায় সবকিছুতে ইদানীং ভিন্নতা দেখা যাচ্ছে। লম্বা কাটিংয়ের সঙ্গে এখন চলছে মাঝারি কাটিংয়ের কামিজ। তরুণীরা ট্রাডিশনাল পোশাকের পাশাপাশি এই নতুন ধারার ফ্যাশনের সঙ্গে সহজেই নিজেকে মানিয়ে নিচ্ছেন। সাধ আর সাধ্যের সমন্বয়েই তৈরি হচ্ছে এ পোশাকগুলো।

বর্ণিল কামিজ : কামিজের রং হতে পারে বিভিন্ন ফুল অথবা প্রকৃতির রং থেকে। ফুলেল ছোঁয়ায় পোশাকে এখন তাই হলুদ, লাল, কমলার দেখা মেলে। দেশীয় ফ্যাশন হাউসগুলোতেও দেখা যায় না তার ব্যতিক্রম। দর্জির দোকান থেকে নিজের পোশাক বানিয়ে নিতেও লক্ষ রাখতে হবে এসবের দিকে। কাপড় কেনা চাই রঙিন দেখে।

তবে এ ক্ষেত্রে লক্ষ রাখতে হবে রং বুঝে তার কাটছাঁট, প্যাটার্ন ও ডিজাইন ঠিক আছে কি না। রঙের সঙ্গে পরিবর্তন রাখা জরুরি পোশাকের ডিজাইনে। কাপড়ের ধরন, বুনন থেকে শুরু করে প্যাটার্ন সবকিছুই ডিজাইনের অন্তর্ভুক্ত। বানাতে দেওয়া পোশাকের ক্ষেত্রে খোঁজ রাখুন কোন কাপড়ের কী রং, এখনকার ফ্যাশনশৈলী। আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে কাপড় বেছে নিন। সুতির চাহিদা সব সময়ে; তা হোক গরম কিংবা শীত।

বিভিন্ন প্যাটার্নের কামিজ : সালোয়ার-কামিজ কেনার জন্য ক্রেতাদের প্রধান আকর্ষণ থাকে দেশের বুটিক হাউসগুলোর দিকে। বুটিক হাউসগুলো সময়, উৎসব ও ঋতুকে প্রাধান্য দিয়ে পোশাক তৈরি করে থাকে বলেই ক্রেতাদের কাছে এর গ্রহণযোগ্যতা অনেক বেশি। তাইতো এসব বিষয় মাথায় রেখে দেশীয় বুটিক হাউসগুলো থেকে শুরু করে প্রতিটি শপিং মলের মূল আকর্ষণ এখন বিভিন্ন প্যাটার্নের কামিজ ও সালোয়ারে। সময়ের বিবর্তনে এ পোশাকটিই ভিন্ন ভিন্ন ডিজাইনে আবির্ভাব হলেও পোশাকটির আদি নামের তেমন কোনো পরিবর্তন হয়নি।

পিডিএসও/তাজ