মেঘলা দিনের সাজ পোশাক

প্রকাশ | ০৬ আগস্ট ২০১৮, ২০:১৭

অনলাইন ডেস্ক

বর্ষার আকাশ। হঠাৎই মেঘের ধূসর আর ময়ূরের নীল ভেঙে পড়ল রাজ্যের সমস্ত সবুজে। ঝুম ঝুম বৃষ্টি! শরীর ভিজে গেল। ভিজল পোশাকও। তাতে কী! বৃষ্টির ছন্দ, শব্দ, স্বাদ, গন্ধ, স্পর্শ, টংকার, মৃদু কোলাহল থাকবে হৃদয়জুড়ে। এটা শুধু অনুভবে না রেখে পোশাকের নকশায়ও এর সৌন্দর্য উপভোগ করুন।

ফাগুন, শীত, গ্রীষ্মের বৈচিত্র্য অনুযায়ী তো ঠিকই আলাদা আলাদা ধরন ও নকশার পোশাক ব্যবহার করেন। আর বর্ষা প্রকৃতির আবহসংবলিত ভিন্ন ঢং, রং ও গড়নের পোশাক ব্যবহার করবেন না, তা কি হয়? এ মৌসুমে চলাফেরায় স্বচ্ছন্দ আর ফ্যাশনে বৈচিত্র্য আনতে দেশের বিভিন্ন ফ্যাশন হাউস বর্ষা উপলক্ষে নতুন নকশার পোশাক বাজারে ছেড়েছে। তরুণদের আগ্রহের কেন্দ্রে আছে এসব বাহারি নকশার কাপড়।

এ সময় বৃষ্টিবান্ধব হালকা-পাতলা পোশাক ব্যবহার করার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা এও বলছেন, সাজটাও হবে সাদামাটা। তবেই স্বস্তি মিলবে। বর্ষা মৌসুমে পোশাকের রং নির্বাচন বিষয়ে ফ্যাশন ডিজাইনার অদিতি মৃন্ময়ী বলেন, এ সময় কাপড়ে হালকা বা স্নিগ্ধ রঙের প্রাধান্য রাখুন। নীল-সাদা, সাদা-ধূসর, সবুজ-নীল অথবা হালকা গোলাপি ধরনের মোটিভের ওপরই সাধারণত বেশির ভাগ বর্ষা আবহের নকশাগুলো ফুটে ওঠে। রং যত হালকা হবে, আপনার পোশাক ততই ট্রেন্ডি লাগবে।’

নারীরা এ সময় পোশাক হিসেবে সিল্ক, জর্জেট, মসলিন ও টিস্যুর কাপড় ব্যবহার করতে পারেন। এ ধরনের কাপড় হুটহাট ভিজে গেলেও দ্রুত শুকিয়ে যায়। যারা শাড়ি পরতে চান এ সময় তারা শর্ট হাতা অথবা স্লিভলেস ব্লাউজ ব্যবহার করতে পারেন। তাতে সচ্ছন্দ পাবেন। রাতে অনুষ্ঠান থাকলে ডিপ ব্লু বা অ্যাশ হ্যান্ডপেইন্টেড মসলিন কাপড় পরে নিতে পারেন।

আর একেবারে হালকা পোশাক পরতে চাইলে ব্লু জিনসের সঙ্গে টপস, টি-শার্ট, শার্ট কিংবা ফতুয়া ব্যবহার করতে পারেন। রং বাছাইয়ের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকলে এসব পোশাকও পরিবেশ অনুযায়ী বেশ মানিয়ে যাবে। গহনা হিসেবে শখের চুড়ি ও মালা ব্যবহার করতে পারেন। পালক দিয়ে তৈরি গহনাও সাজে আনবে বর্ষার আমেজ। এ ছাড়া মুক্তা, ঝিনুক, কড়ি বা শামুকের গহনাও যেকোনো ধরনের সাজ-পোশাকের সঙ্গেই দারুণ মানিয়ে যায়।

নারীদের পাশাপাশি পুরুষরাও বর্ষার পোশাক হিসেবে ধূসর, নীল বা সাদা শার্ট, টি-শার্ট বা পাঞ্জাবি ব্যবহার করতে পারেন। পায়ে প্লাস্টিকের স্যান্ডেল রাখুন, বৃষ্টি-কাদার হাত থেকে রেহাই মিলবে। এটা ফ্যাশনেবলও। ছেলেরা পাম্প শুও ব্যবহার করতে পারেন। এ সময় চুলের জেল এড়িয়ে চলুন, মাথার ত্বক ভালো থাকবে।

পিডিএসও/তাজ