ফেসবুকে স্ট্যাটাসে সালমান শাহের মা

‘রুবি তোমার ফোন নাম্বার দাও’

প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০১৭, ১০:০৪

অনলাইন ডেস্ক

আত্মহত্যা নয়, হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছিলেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়ক সালমান শাহ এবং তা করিয়েছিলেন তারই স্ত্রী সামিরা হকের পরিবার। রাবেয়া সুলতানা রুবি নামে এক নারী এই দাবি তোলার পর ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন সালমান শাহের মা নীলা চৌধুরী। স্ট্যাটাসে তিনি ২২ বছর পর এই চিত্রনায়কের বিউটিশিয়ান রুবির এই দাবিকে গুরুত্বের সাথে দেখার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। একইসঙ্গে দেশের সব টিভি চ্যানেলগুলোকে ওই স্বীকারোক্তি প্রচারের অনুরোধ করেছেন নীলা চৌধুরী।

সালমান শাহের মা নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাসে বলেন, প্রিয় দেশবাসী। আমাকে সাহায্য করুন। দেখুন, রুবি সুলতানার স্বীকারোক্তি। কীভাবে সালমানকে হত্যা করা হয়েছে। যেভাবে পারেন এফবিআইকে জানান, বাংলাদেশের সকল চ্যানেলকে অনুরোধ করছি রুবির স্বীকারোক্তিটা চালিয়ে দেন।

সোমবার রাবেয়া সুলতানা রুবি নামে আমেরিকা প্রবাসী এক বাংলাদেশি অনলাইনে একটি ভিডিও প্রকাশ করেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই এটি ভাইরাল হয়ে যায়। অনলাইনে ভাইরাল হয়ে ওঠা ওই ভিডিও বার্তায় রাবেয়া সুলতানা রুবি দাবি করেছেন, সালমান শাহকে খুন করা হয়েছে।

সেই খুনের সঙ্গে জড়িত ছিলেন তার চীনা স্বামী। চীনাদের দিয়ে এই খুন করানো হয়। এতে জড়িত ছিলেন সালমান শাহের স্ত্রী সামিরার পরিবারও। ভিডিওতে সালমান শাহের মা নীলা চৌধুরীকে উদ্দেশ করে রাবেয়া সুলতানা রুবি বলেন, এই খুনের বিষয়ে আমি সব জানি। যেভাবেই হোক, আবার যেন মামলা তদন্তের ব্যবস্থা করা হয়। আমি যেমন করেই হোক আদালতে সাক্ষী দেব।

এই ভিডিওটি নজরে আসে লন্ডনে অবস্থানরত সালমান শাহের মা নীলা চৌধুরীর। তিনি তার ছোট ছেলে শাহরানের কাছে আছেন। ফেসবুক স্ট্যাটাসে সালমান শাহের মা শঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, প্রিয়জন, খেয়াল রাখবেন এই নিউজের পর অনেকে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করার চেষ্টা করবে। শান্তভাবে কাজ করবে। সালমানের স্ত্রী সামিরা ও তার পরিবার যেন দেশ থেকে পালিয়ে যেতে না পারে সে দিকেও নজর দিতে অনুরোধ জানান নীলা চৌধুরী।

রুবির ভিডিও বার্তাটি দেখে তার উদ্দেশে নীলা চৌধুরী ফেসবুকে লেখেন, রুবি তুমি এতো কথা বলতে পারছো তাহলে এফবিআই বা আমেরিকার পুলিশকে জানাতে পারছো না কেন? তারা যাতে তোমাকে নিরাপদে রাখে। তোমার ফোন নাম্বার দাও।

পিডিএসও/হেলাল