দুবাইয়ে বাংলাদেশ ইকনোমিক ফোরামের কনফারেন্স অনুষ্ঠিত

প্রকাশ | ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৩:৪১

অনলাইন ডেস্ক

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ ইকনোমিক ফোরামের বার্ষিক ইকনোমিক কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়েছে।স্থানীয় সময় শনিবার দিনব্যাপী দুবাইয়ের সুইজোটেল বলরূমে আয়োজিত এ কনফারেন্স বাংলাদেশ ও আমিরাতের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ও বিনিয়োগকে উৎসাহিত করবে বলে জানায় আয়োজক প্যান এশিয়ান মিডিয়া ।

 সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ ইমরান এতে প্রধান অতিথি ছিলেন। এ সময়  আরব আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের কমার্শিয়াল কাউন্সেলর এ কে এম রফিক আহমদ বাংলাদেশ সরকারের বিনিয়োগবান্ধব নীতির একটি উপস্থাপনা তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত ইমরান বলেন, ‘সম্প্রতি ইউএই থেকে আমিরাতের ও বাংলাদেশি বিনিয়োগকারীদের মধ্যে বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহ বেড়েছে। তেমনি বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশিও আমিরাতে তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলছেন। বর্তমানে আমিরাতে ৫০ হাজার বাংলাদেশি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। দেশে ফরেন ডাইরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট বেড়ে ২২ দশমিক ৫২ শতাংশ হয়েছে এবং গত ২০১৬-১৭ অর্থবছরে তা ছিল ২ দশমিক ৪৫ বিলিয়ন ডলার।

এ ছাড়া দুবাই সরকার একশ’টি অর্থনৈতিক জোন প্রতিষ্ঠা করছেন যেখানে আমিরাতিসহ বিদেশিরা একশ’ ভাগ বিদেশি মালিকানাধীন শতভাগ রপ্তানিমুখী শিল্প প্রতিষ্ঠা করতে পারবেন।সাশ্রয়ী শ্রমশক্তি এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পণ্যের কর রেয়াত রপ্তানি কোটার সুযোগ নিয়ে অধিক মুনাফা অর্জন করতে পারবেন।’

আমিরাতে ধীরে ধীরে বাংলাদেশের ভিসা জটিলতা শিথিল করা হলে তা দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে বলেও তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বাংলাদেশের ব্র্যান্ডিং এ প্যান এশিয়া মিডিয়ার মতো প্রবাসীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। আইদিন বুটিক এই আয়োজনের একমাত্র বাংলাদেশি স্পন্সর ছিল।

সেমিনারে দুটি পর্যায়ে আলোচক ও মডারেটর ছিলেন প্রাণীবিজ্ঞানী ও দুবাই জু’র পরিচালক রেজা খান এন আরব ব্যাংক চেয়ারম্যান ও আল হারামাইন গ্রুপের স্বত্বাধিকারী মাহতাবুর রহমান নাসের, যায়েদ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক হাবিবুল হক খোন্দকার, বাংলাদেশ সমিতি ইউএই’র সভাপতি প্রকৌশলী মোয়াজ্জেম হোসেন, ভারতীয় উদ্যোক্তা সুদেশ আগারওয়াল, উলুনগং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক জিনাত রেজা খান, প্রবাসী বাংলাদেশি নারী উদ্যোক্তা ও আইদিন বুটিকের স্বত্বাধিকারী কাজী গুলশান আরা, এতিসালাত গ্রুপের অন্যতম সাবেক পরিচালক এবং ফাইন্যান্স ও একাউন্টস স্পেশ্যালিস্ট কাজী মোহাম্মদ হোসেন, ব্যাংকার ও ইসলামী ব্যাংকিং স্পেশ্যালিস্ট মুনীর সাহাবুদ্দীন, আইউব আলী বাবুল, ফায়সাল বাহেদনা, এস এ মোরশেদ, নেসার খান ও রুদ্র দাশগুপ্ত। 

পিডিএসও/তাজ