সৌদিতে বাড়ছে বাংলাদেশিদের অস্বাভাবিক মৃত্যু

প্রকাশ : ২১ জুলাই ২০১৮, ১৪:৫৫

কূটনৈতিক প্রতিবেদক

জীবন-জীবিকার তাগিদে প্রবাসে পাড়ি জমান বাংলাদেশিরা। আর এই বাংলাদেশি প্রবাসী কর্মীদের একটি বড় অংশ রয়েছে সৌদি আরবে। মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশটিতে রয়েছে প্রায় ২০ লাখ বাংলাদেশি। তবে এই দেশে প্রবাসী বাংলাদেশিদের অস্বাভাবিক মৃত্যু বেড়েই চলেছে। প্রতি মাসেই ২০-২৫ জন বাংলাদেশি প্রাণ হারাচ্ছেন।

সূত্র জানায়, সৌদিতে বাংলাদেশির বেশির ভাগ অস্বাভাবিক মৃত্যু হচ্ছে সড়ক দুর্ঘটনায়। এ ছাড়া জঙ্গি হামলা, কারখানায় বিস্ফোরণ ইত্যাদি কারণেও সেখানে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মৃত্যু হচ্ছে। সৌদি আরবে প্রতিদিনই সড়ক দুর্ঘটনায় গড়ে নিহত হয় ১৫ জন। আর এই নিহত নাগরিকদের মধ্যে প্রবাসী বাংলাদেশিও রয়েছেন। দেশটি সড়ক দুর্ঘটনা রোধে নানা উদ্যোগ নিলেও সেটা ব্যর্থ হচ্ছে। সে কারণে সড়ক দুর্ঘটনা বেড়েই চলেছে।

সর্বশেষ গত ৮ জুলাই সৌদিতে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় পাঁচ বাংলাদেশি অভিবাসী নিহত হন। আহত হন আরো ১১ বাংলাদেশি। বাংলাদেশি শ্রমিকদের বহনকারী একটি মিনিবাসের চাকা ফেটে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গেলে ওই দুর্ঘটনা ঘটে। ওই দুর্ঘটনায় আহত শ্রমিকদের মধ্যে এখনো কয়েকজন জেদ্দার বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের বিষয়টি সাধারণ ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে সৌদি আরবে। সড়ক দুর্ঘটনার প্রধানতম বলি হচ্ছে বাংলাদেশি শ্রমিকরা। সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনার পাশাপাশি কল-কারখানাতেও নানা দুর্ঘটনায় মৃত্যু হচ্ছে বাংলাদেশি প্রবাসীদের। কারখানায় বয়লার বা সিলিন্ডার বিস্ফোরণেও মৃত্যুর সংখ্যা কম নয়। সৌদি আরবের হাইল জেলার হোলাইফা শহরে গত এপ্রিলে সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত হয়েছেন সাত বাংলাদেশি।

এদিকে মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশেই জঙ্গি হামলা এখন বেড়েই চলেছে। সৌদির সঙ্গে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহী গোষ্ঠীর যুদ্ধ চলছে। দুই দেশই একে অপরের বিরুদ্ধে হামলা চালিয়ে আসছে। আর এই হামলার বলি হচ্ছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরাও।

গত ৮ জুলাই সৌদি আরবের কাসিম প্রদেশের বুরাইদহ এলাকার একটি চেকপয়েন্টে জঙ্গি হামলা হয়। ওই হামলায় সৌদি আরবের এক নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য ও এক বাংলাদেশি নিহত হন। জানা গেছে, ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহী গোষ্ঠী ওই জঙ্গি হামলা চালায়। এ সময় নিরাপত্তা বাহিনী পাল্টা গুলি ছোড়ে। গোলাগুলিতে তিন জঙ্গির মধ্যে দুজন নিহত হন। হুতি জঙ্গি গোষ্ঠীদের সঙ্গে বাংলাদেশি শ্রমিকদের কোনো বিরোধ না থাকলেও ঘটনার শিকার হয়ে মৃত্যুবরণ করছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

সৌদি আরবের জেদ্দায় কর্মরত ফয়সাল আমিন বলেন, তিন বছর ধরে সৌদিতে কাজ করছি। এখানে প্রতিদিনই কোনো না কোনো দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি শ্রমিকের মৃত্যু হচ্ছে। তবে এই শ্রমিকদের সচেতন করার জন্য কোনো উদ্যোগ নিতে দেখা যায় না। সে কারণে বাংলাদেশিদের মৃত্যুহার অনেক বেশি। একই কথা বলেছেন রিয়াদে কর্মরত প্রবাসী শ্রমিক আবদুল বাতেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশি শ্রমিকরা এখানে খুবই নিষ্ঠার সঙ্গে, আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করেন। তবে এসব শ্রমিকের নিজেদের নিরাপত্তার দিকে খুব একটা নজর দেওয়া হয় না। তাই নানা কারণে তাদের মৃত্যু হয়। শ্রমিকদের আরো সচেতন হওয়া উচিত।

পিডিএসও/তাজ