কমবে গরম, সম্ভাবনা বৃষ্টির

প্রকাশ : ২১ জুন ২০১৮, ১৩:৪৪ | আপডেট : ২১ জুন ২০১৮, ১৩:৫৭

অনলাইন ডেস্ক

গ্রীষ্মে গরমের পাশাপাশি ঝড়োহাওয়া আর বৃষ্টিও ছিল। তাতে গরমের প্রকোপ থেকে কিছুটা হলেও স্বস্তি মিলেছিল। তবে চলতি বর্ষায় আষাঢ়ে বৃষ্টির দেখা মিলেনি এখনো। যদিও পূর্বাভাস রয়েছে, দুয়েকদিনের মধ্যে বৃষ্টির প্রবণতা বাড়বে আর কমবে গরম। আবহাওয়া অফিস বলছে, গত ১৮ জুন এ মৌসুমের সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড হয়েছে চুয়াডাঙ্গায়। এটাই ছিল এ মৌসুমে দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের উপপরিচালক আয়শা খাতুন বলেন, দেশের ওপর দিয়ে কয়েকদিন যে তাপপ্রবাহ বয়ে গিয়েছিল, তা বুধবার থেকে ছিল না, আজও তাপপ্রবাহ দেশের কোথাও নেই। আগামী বাহাত্তর ঘণ্টায় সারাদেশে বৃষ্টির প্রবণতা বাড়তে পারে। তিনি বলেন, দেশের সিলেট এবং ময়মনসিংহের অনেক জায়গায় বজ্রসহ ভারী বর্ষণের  সম্ভাবনা রয়েছে। রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়া, বিদ্যুৎ চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের হিসাবে, বুধবার দেশে সবচেয়ে বেশি গরম পড়েছে কক্সবাজারের টেকনাফে, ৩৬.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে ঢাকায় পারদ কিছুটা কম। এখানে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এই তাপমাত্রা আগামী দুয়েকদিনে আরো হ্রাস পেতে পারে।

আগামী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়া, বিদ্যুৎ চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে বলেও আবহাওয়ার পূর্বাভাসে উল্লেখ করা হয়েছে।

পশ্চিমা লঘুচাপ বিহার এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। এর একটি বর্ধিতাংশ বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল থেকে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে। বৃহস্পতিবার ঢাকায় সূর্যোদয় হয়েছে ভোর ৫টা ১১ মিনিটে, সূর্যাস্ত হবে সন্ধ্যা ৬টা ৪৯ মিনিটে।

পিডিএসও/হেলাল