করোনায় বন্ধ হয়ে যাচ্ছে সব সিনেমা হল

প্রকাশ : ১৬ মার্চ ২০২০, ১৭:৫৩ | আপডেট : ১৬ মার্চ ২০২০, ১৮:০৩

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ৮ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। জনসমাগমস্থল এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিচ্ছে সরকার। আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে দেশজুড়ে। করোনাভাইরাসের আতংকে হলিউড-বলিউডের অনেক বড় বড় ছবির শুটিং বন্ধ হয়ে গেছে। বড় বড় চলচ্চিত্র উৎসব বাতিল করা হয়েছে। আশঙ্কা আছে এ বছরের কান উৎসব নিয়েও।

করোনা ভাইরাসের প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র পাড়ায়। সারাদেশের হলগুলোতে এর প্রভাব বেশ ভালোভাবেই লক্ষ করা যাচ্ছে। বেশ কয়েক দিন ধরেই শোনা যাচ্ছিলো করোনার কারণে সাময়িক বন্ধ হতে পারে সব সিনেমা হল।

এবার স্বাস্থ্যঝুঁকির কারণে সিনেমা হলগুলো বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতি। সমিতির সভাপতি কাজী শোয়েব রশিদ জানিয়েছেন, হল বন্ধ রাখার ব্যাপারে সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত হয়ে গেছে। ১৮ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ থাকবে দেশের সব সিনেমা হল। তবে সিনেপ্লেক্সগুলো এর আওতার বাইরে থাকবে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সিনিয়র ভাইস-চেয়ারম্যান মিয়া আলাউদ্দিন বলেন, সবাই সচেতন হচ্ছে। সরকার করোনা থেকে বাঁচতে নানা সচেতনতামূলক পদক্ষেপ নিয়েছে। দেশের স্কুল-কলেজ বন্ধ করা হয়েছে। আমার ব্যক্তিগত মতামত হলো, এ সময় সিনেমা হলও বন্ধ রাখা প্রয়োজন। জনসমাগম যেখানেই হবে সেটাই বন্ধ করা উচিৎ।

তিনি আরও বলেন, স্পেনসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে এরই মধ্যে সিনেমাহল বন্ধ করা হয়েছে। বাংলাদেশের হলগুলোও আপাতত বন্ধ হওয়া উচিৎ। শিগগির প্রদর্শক সমিতি এই বিষয়ে মিটিং করে সিন্ধান্ত নেবে। দুই এক দিনের মধ্যেই আমরা আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবো। এই সময়ে কেউ সিনেমা দেখতে আসবে না। শুধু শুধু হল চালু রাখার কোনো কারণ দেখি না।

প্রসঙ্গত, সোমবার এক সভায় আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত সব সারাদেশের স্কুল-কলেজ, মাদরাসাসহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। মঙ্গলবার থেকে এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

পিডিএসও/তাজ