নতুন বছরে তাহসানের পরিকল্পনা

প্রকাশ : ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:৫৯ | আপডেট : ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:৪৭

তুহিন খান নিহাল
গায়ক ও অভিনেতা তাহসান রহমান খান

দেশের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী। শুধু গায়ক হিসেবে নয়, নাট্যজগতেরও বহুল পরিচিত মুখ। অভিষেক হয়েছে রুপালি পর্দায়ও। যার ভক্ত-সমর্থক বেশির ভাগ তরুণ-তরুণী। বলছি গায়ক ও অভিনেতা তাহসান রহমান খানের কথা। যিনি তাহসান নামেই অধিক পরিচিত। ১৮ বছরের ক্যারিয়ারে সৃজনশীল কাজ ও ব্যক্তিগত জীবন তারুণ্য থেকে সমবয়সি মানুষের কাছে পরিণত হয়েছেন ‘আইকনিক ব্যক্তিত্ব’ হিসেবে। যার কৃতিত্ব তিনি দর্শককে দিতে চান।

নিজের ক্যারিয়ারের কথা জানিয়ে তাহসান বলেন, ১৮ বছর পার হয়ে গেল। এ লম্বা সময়ে আমি দেখেছি আমার প্রতি মানুষের ভালোবাসা; যা দিনের পর দিন শুধুই বেড়েছে! তারা শুধু ছবি তুলেই আমাকে ভুলে যায়নি। ১৫ বছর আগের গান এখনো যখন আমি গাই, তখন দেখি রাস্তাঘাট ব্লক হয়ে যায়। যখন কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ কিছু পাই, তখন মনে হয় এটার প্রাপ্য আমার ওইসব ভক্ত। সবসময় বলি, ভক্তদের কারণে আমি বাংলাদেশে ‘ওয়ান অব দ্য লাকিয়েস্ট’ সেলিব্রিটি। তাদের কারণে আজকের তাহসান আমি।

নিজের নতুন বছরের পরিকল্পনা জানিয়ে তাহসান বলেন, আমি প্রতি বছরের শুরুতেই ঠিক করি এ বছর কী করব। ঠিক তেমনি আসছে নতুন বছর নিজের ‘তাহসান অ্যান্ড দ্য ব্যান্ড’কে সময় দেব। ২০২০ সালে ১২টি গান করব। যার লেখা এবং সুর সব আমারই থাকবে। প্রতি মাসে একটা করে গান রিলিজ হবে। এখন পর্যন্ত এ পরিকল্পনা নিয়েই এগোচ্ছি। এ ছাড়া জানুয়ারিতে নতুন একটি সিনেমার কাজ শুরু করব। ছবিটি নিয়ে এখনি কিছু বলতে চাই না। শুরু হলে জানাব সব।

মিথিলার সঙ্গে বিচ্ছেদের পর নানা ঘটনার জন্ম দিলেও আজ অবধি তাহসান নীরব। এ প্রসঙ্গে তাহসান বলেন, মানুষের যখন বিচ্ছেদ হয়, তখন তারা কাদা ছোড়াছুড়ি শুরু করে। আমি কখনোই এমন কাজে লিপ্ত হইনি। কারণটা হলো, আমি এখন যা বলব, আমার মেয়ে বড় হয়ে সেগুলো শুনবে, দেখবে। আমি কখনোই চাই না আমার মেয়ে, আমার মুখ থেকে কোনো কটু কথা শুনুক। শুধু বিচ্ছেদ কেন, আমি ব্যান্ডদল ‘ব্ল্যাক’ থেকে বেরিয়ে আসার পরও চুপ ছিলাম। আমি বলব, যখনই ভাঙন হয়, দুই পক্ষের ন্যারেটিভ থাকে। যদি ন্যারেটিভগুলো প্রকাশ পায়, তবে তিক্ততার শিখরে চলে যায়। এই তিক্ততায় ভাঙনগ্রস্ত ওই দুজন মানুষের লাভ হবে না। শুধু যারা গসিপ করবে তাদের লাভ হবে। মূলকথা হলো, আমি যদি ভুল করে থাকি, তবে সেটা প্রকাশ পেত। আমি সঠিক কি না, সেটাও প্রকাশ পেয়েছে।

এখন যে অবস্থানে দাঁড়িয়ে আছেন! এখান থেকে নতুন করে সংসার সাজানোর পরিকল্পনা প্রসঙ্গে এ সংগীতশিল্পী বলেন, অবশ্যই জীবন সাজানোর পরিকল্পনা আছে। তবে এটা সৃষ্টিকর্তাই ঠিক করবেন। আর পরিবারের চাপ আছে। বাবা-মা অনেক দিন ধরেই বিয়ের জন্য প্রেসার দিচ্ছেন। আমি বলেছি, তোমাদের দেখার কাজ, তোমরা পাত্রী দেখো। পরেরটা পরে দেখা যাবে। আর যদি বিয়ে হয়ও আমার ব্যক্তিগত জীবন আর কখনো প্রকাশ করব না। যে নতুন করে আমার জীবনে আসবে, তার প্রাইভেসিটাও গুরুত্বপূর্ণ। পাবলিক জানলেই আমার নতুন বউ নিয়ে আবার ফেসবুক-ইউটিউবে নতুন নতুন গসিপ শুরু করবে। তাই যা কিছু করি না কেন, সবকিছুই গোপন থাকবে।

তবে নতুন বছরে এমন পরিকল্পনার কথা উড়িয়ে দিয়েছেন তাহসান।

পিডিএসও/হেলাল