বান্দরবানের পাহাড়চূড়ায় এবারের ইত্যাদি

প্রকাশ : ২৯ নভেম্বর ২০১৯, ১৬:৩৯

অনলাইন ডেস্ক

জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যাদি’র বান্দরবানে ধারণকৃত পর্ব একযোগে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে প্রচার হবে আজ রাত ৮ টার বাংলা সংবাদের পর।

এবারের পর্বে আছে বান্দরবানের ইতিহাস, ঐতিহ্যের পাশাপাশি প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমণ্ডিত, দর্শনীয় ও পর্যটকদের জন্য আকর্ষণীয় স্থানগুলোর উপর তথ্যভিত্তিক প্রতিবেদন। এছাড়াও রয়েছে পার্বত্য এলাকার ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর চঞ্চল কান্তি চাকমার ব্যতিক্রমী উদ্যোগের উপর একটি মানবিক প্রতিবেদন।

২০১১ সালে প্রচারিত ইত্যাদিতে টাঙ্গাইলের মধুপুর গড়ে স্থাপিত ব্যতিক্রমধর্মী স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র কাইলাকুড়ী হেলথ কেয়ার সেন্টার এবং এর পরিচালক নিউজিল্যান্ডের অধিবাসী ৭৪ বছর বয়স্ক ডাক্তার প্রয়াত এড্রিক বেকারের উপর একটি প্রতিবেদন প্রচার করা হয়েছিল। তার মৃত্যুর পর হাসপাতালের নুতন ডাক্তার ভাই ও ডাক্তার দিদি জেসন-মারিন্ডি দম্পতির ব্যতিক্রমী কার্যক্রমের উপর রয়েছে একটি অনুকরণীয় প্রতিবেদন।

পৃথিবীর কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সমুদ্র সৈকতের পরিবেশের উপর রয়েছে একটি সচেতনতামূলক প্রতিবেদন। এবারের বিদেশি প্রতিবেদনে রয়েছে ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের পাথর নগরী বলে খ্যাত মামাল্লাপুরামের কিছু স্মৃতিস্তম্ভের উপর সচিত্র প্রতিবেদন।

এবারের ইত্যাদিতে রয়েছে বাংলা ও মারমা গানের দু’জন প্রতিষ্ঠিত শিল্পী আঁখি আলমগীর এবং মান মান সিং এর কণ্ঠে একটি অনুরাগের গান। গানটি লিখেছেন প্রখ্যাত গীতিকার মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান, সুর করেছেন হানিফ সংকেত, সঙ্গীতায়োজন করেছেন মেহেদী।

এছাড়াও বান্দরবানের সবুজ-শ্যামল রূপ বৈচিত্র্য নিয়ে মোহাম্মদ রফিকউজ্জামানের কথায়, হানিফ সংকেতের সুর ও মেহেদীর সঙ্গীতায়োজনে আর একটি গানের সঙ্গে নৃত্য পরিবেশন করেছেন বান্দরবানের ১১টি নৃগোষ্ঠী ও বাঙালি শিল্পীদের সমন্বয়ে শতাধিক নৃত্যশিল্পী।

পিডিএসও/তাজ