তনুশ্রীকে যৌন হেনস্তার অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত

প্রকাশ : ১৪ জুন ২০১৯, ১৮:১৩ | আপডেট : ১৪ জুন ২০১৯, ১৮:২৮

অনলাইন ডেস্ক

বলিউডে তনুশ্রীর মাধ্যমে #মিটু ঝড় শুরু হয়েছিল। এরপর বড় বড় তারকাশিল্পীদের পিছনেও অভিযোগ দায়ের হয়েছিলো যৌন হেনস্তার।

জনপ্রিয় অভিনেতা ও পরিচালক নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্তর যৌন হেনস্তার অভিযোগ দিয়েই বলিউডে এই হ্যাশট্যাগ মিটু আন্দোলনের সূচনা হয়। তবে তনুশ্রীর করা সব অভিযোগ থেকে মুক্তি পেয়েছেন নানা পাটেকর। অভিযোগে তদন্তের পর মুম্বাই পুলিশ জানিয়ে দিলো, ওই ঘটনায় নানার বিরুদ্ধে কোনও তথ্যপ্রমাণ মেলেনি।

পুলিশের এমন বলার পর তনুশ্রী দত্তের আইনজীবী নিতিন সতপুত ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে জানান, পুলিশ তাদের এখনও কিছু লিখিত জানায়নি। মামলা খারিজ করা হলে তারা আবারও আদালতের দ্বারস্থ হবেন।

এর আগে তনুশ্রীর অভিযোগ করেন,  ২০০৮ সালে ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির একটি গানের শ্যুটিংয়ের সময় নানা পাটেকর তার গায়ে আপত্তিকরভাবে স্পর্শ করার চেষ্টা করেন। এরপর তিনি নানা পাটেকরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করতে অস্বীকার করেন এবং শুটিং সেট ছেড়ে বেরিয়ে যান। ঘটনার পর বিশেষ রাজনৈতিক দলের গুণ্ডাদের দিয়ে তার গাড়িতে নানা পাটেকর ভাঙচুর করান। 

গত ৭ মাস আগে নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে তনুশ্রীর দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতেই নানার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করে মুম্বাইয়ের ওশিওয়ারা থানা। মুম্বাই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির কাছে তনুশ্রীর দাবি ছিল, নানাকে বয়কট করা হোক।

এবার পুলিশ জানিয়ে দিলো তনুশ্রীর অভিযোগ মিথ্যে। ফলে যৌন হেনস্তা কাণ্ডে কিছুটা স্বস্তিতে অভিনেতা নানা পাটেকর। 

পিডিএসও/তাজ