বিনোদন সাংবাদিকদের বই

প্রকাশ : ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৩:৫৮ | আপডেট : ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৫:১০

তুহিন খান নিহাল

অমর একুশে গ্রন্থমেলা ঘিরে বই প্রকাশের ধুম পড়ে বাংলাদেশে। বই প্রকাশে রীতিমতো উৎসবে পরিণত হয়। এ উৎসবে সব শ্রেণি-পেশার লেখকের পাশাপাশি শোবিজ সাংবাদিকরা বই প্রকাশ করেন। 
তাদের কয়েকজনের বই নিয়ে এ প্রতিবেদন—

অনুরূপ আইচের ‘প্র্রেমভাগ্য’ ও ‘প্র্রেম এত সস্তা না’ 

বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছে গীতিকার ও সাংবাদিক অনুরূপ আইচের ‘প্র্রেমভাগ্য’ ও ‘প্র্রেম এত সস্তা না’ নামের দুটি বই। পাওয়া যাচ্ছে মেলার শুদ্ধ প্রকাশের ৩৯৮ নম্বর স্টলে। পাশাপাশি তার আরো দুই বই পাওয়া যাচ্ছে সব্যসাচী ও কালো প্রকাশনীর স্টলে। এ ছাড়াও অনুরূপ আইচের ‘প্র্রেমময়’ ও ‘অ্যালকোহল’ নামের বই কালো ও বাংলা প্রকাশের স্টলে পাওয়া যাচ্ছে।

জাহিদ আকবরের ‘শিকার’

শোবিজ জগতের অলিগলির বিভিন্ন ফাঁদপাতা ঘটনা নিয়ে ‘শিকার’ শিরোনামের বই লিখেছেন গীতিকবি ও সাংবাদিক জাহিদ আকবর। তিনি দৈনিক ডেইলি স্টারে কর্মরত। ‘প্রিয়মুখ প্রকাশনীর ব্যানারে ‘শিকার’ বইটি ১৭৬-১৭৭ নম্বর স্টলে পাওয়া যাচ্ছে।

তানভীর তারেকের ‘নানা রঙের মনগুলি’

প্রকাশ পেয়েছে গীতিকার-সাংবাদিক তানভীর তারেকের বই ‘নানা রঙের মনগুলি’। ‘বরেণ্য কয়েকজন মানুষের সঙ্গে নিজের আলাপচারিতার কিছু কথা তিনি এ বইয়ে তুলে ধরেছেন। তানভীর তারেক দৈনিক ইত্তেফাকে কর্মরত। ভাষাচিত্রের ব্যানারে বইটি ১২৯-১৩০ ও ১৩১ নম্বর স্টলে পাওয়া যাচ্ছে।

মঈন আবদুল্লাহর ‘সিনেমা হলে তালা’

দেশের সিনেমা হলের অতীত ও বর্তমান চলচ্চিত্র নিয়ে প্রকাশিত হয়েছে গবেষণামূলক গ্রন্থ ‘সিনেমা হলে তালা’। লিখেছেন সাংবাদিক মঈন আবদুল্লাহ। তিনি দৈনিক আমাদের সময়ে কর্মরত। বাংলানামা প্রকাশনীর ব্যানারে বইটি পাওয়া যাচ্ছে বাংলা একাডেমি চত্বরের ৬৮ নম্ব স্টলে।

জনি হকের ‘কান কথা’

কান চলচ্চিত্র উৎসব নিয়ে বই লিখেছেন সাংবাদিক ও গীতিকার জনি হক। ঐতিহ্যের ব্যানারে বইটিতে লেখক নিজের কাভার করা কান উৎসবের গল্প তুলে ধরেছেন। তিনি বাংলা ট্রিবিউনে কর্মরত। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ৬নং প্যাভিলিয়নে ঐতিহ্যের স্টলে বইটি পাওয়া যাচ্ছে।

রেজাউর রহমান রিজভীর ‘ভালোবেসে চলে যেতে নেই’ ও ‘তিনটি টেলিভিশন নাটক’

দৈনিক মানবকণ্ঠে কর্মরত সাংবাদিক রেজাউর রহমান রিজভীর দুটি বই প্রকাশ পেয়েছে এবারের বইমেলায়। বই দুটি হচ্ছে—গল্পগ্রন্থ ‘ভালোবেসে চলে যেতে নেই’ ও নাটকের বই ‘তিনটি টেলিভিশন নাটক’। দোয়েল প্রকাশনীর ব্যানারে বই দুটি মেলার ২০৫ নম্বর স্টলে পাওয়া যাচ্ছে।

পান্থ আফজালের ‘তারার মুখে তারার গল্প’

দেশি-বিদেশি রঙিন অঙ্গনের তারকাদের সঙ্গে আলাপচারিতা, আড্ডা, তাদের অনেক অজানা গল্প নিয়ে ‘তারার মুখে তারার গল্প’ শিরোনামের বই লিখেছেন সাংবাদিক পান্থ আফজাল। তিনি দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনে কর্মরত। দেশ পাবলিকেশন্সের ব্যানারে বইটি পাওয়া যাচ্ছে ৩৮৮-৩৮৯ নম্বর স্টলে।

রুদ্র হকের ‘নাক নেই’

অমর একুশে গ্রন্থমেলায় কবি ও সাংবাদিক রুদ্র হকের কবিতার বই প্রকাশিত হয়েছে। বইটির নাম ‘নাক নেই’। প্রকাশ করেছে ‘ঐতিহ্য’। বইটি ৬নং প্যাভিলিয়নে ঐতিহ্যের স্টলে পাওয়া যাচ্ছে। রুদ্র হক বিডিনিউজ২৪-এ কর্মরত।

ওমর ফারুকের ‘দুঃখিত স্যার’

গীতিকার-সাংবাদিক ওমর ফারুকের লেখা ‘দুঃখিত স্যার’ শিরোনামের বই প্রকাশ পেয়েছে। ছয়টি গল্প দিয়ে সাজানো বইটি বের হয়েছে দেশ পাবলিকেশন্সের ব্যানারে। মেলার ৩৮৮-৩৮৯ নম্বর স্টলে বইটি পাওয়া যাচ্ছে।

মাহতাব হোসেনের ‘শর্মিলা’

বইমেলায় প্রকাশ পেয়েছে মাহতাব হোসেনের উপন্যাস ‘শর্মিলা’। দেশ পাবলিকেশন্সের ব্যানারে উপন্যাসটি পাওয়া যাচ্ছে ৩৮৮ নম্বর স্টলে। এ ছাড়াও মেলায় পাওয়া যাবে মাহতাব হোসেনের আরো একটি গল্পগ্রন্থ ‘রৌদ্র বসন্ত’। ৯টি গল্পে আবৃত এ গ্রন্থ প্রকাশ করেছে ‘শুদ্ধ প্রকাশ’। ৩৯৮ নম্বর স্টলে পাওয়া যাচ্ছে বইটি। তিনি দৈনিক কালের কণ্ঠে কর্মরত। 

পিডিএসও/হেলাল