ঝড় তুলেছে ‘হার্ড হার্ড’

প্রকাশ : ৩০ আগস্ট ২০১৮, ১০:৩৯

অনলাইন ডেস্ক

শহিদ কাপুর ও শ্রদ্ধা কাপুর জুটির নতুন ছবি ‘বাত্তি গুল মিটার চালু’। ২৮ আগস্ট ইউটিউবে মুক্তি পেয়েছে এ ছবির তিন নম্বর গান ‘হার্ড হার্ড’। দুদিন না যেতেই রীতিমতো ঝড় তুলেছে মিকা সিংয়ের গাওয়া ধামাকেদার এ পার্টি সং। এরইমধ্যে প্রায় ৬৭ লাখ দর্শক দেখে ফেলেছেন গানটি। এতে মিকা সিং ছাড়াও কণ্ঠ দিয়েছেন সাচেত টন্ডন ও প্রকৃতি কক্কর।

এর আগে মুক্তি পায় ‘বাত্তি গুল মিটার চালু’র ট্রেলার। যেটি ইতোমধ্যে চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে। ট্রেলারে প্রথমদিকে ছবিটি কমেডি মনে হলেও আসলে কমেডির মোড়কে এখানে রয়েছে দুর্নীতির বিরুদ্ধে কড়া জবাব। তবে ডার্ক কমেডি ভেবে বসলে কিন্তু ভুল করবেন। এটি পুরোপুরিই কমার্শিয়াল ছবি। কমার্শিয়াল ছবিতে হিরো-হিরোইনের নাচ এবং রোমান্স ছাড়াও দর্শকের মনে দাগ কাটার মতো অনেক কিছুই থাকে। সেই ধরণের সামাজিক বার্তাই দেবে ‘বাত্তি গুল মিটার চালু’।

ছবির তিন মুখ্য চরিত্র তিন বন্ধু শহিদ কাপুর (বিমল), শ্রদ্ধা কাপুর (নৌটি) এবং দিব্যেন্দু (ত্রিপাঠি)। এর কাহিনিতে দেখা যাবে, তিন বন্ধু যে জায়গায় থাকে সেই পাহাড়ি এলাকায় বিদ্যুতের খুব সমস্যা। চব্বিশ ঘন্টার অধিকাংশ সময়ই বিদ্যুৎ থাকে না। এমনই পরিস্থিতিতে অদ্ভুতভাবে ত্রিপাঠির নামে আড়াই লাখ টাকার বিল আসে। যে জায়গায় রাত-দিনের অধিকাংশ সময়ই বিদ্যুৎ থাকে না সেখানে এতো টাকার বিল আসে কী করে!

এরপর সমাজের ওপরের মহল থেকে শুরু করে ইলেকট্রিসিটির অফিসেও কথা বলে ত্রিপাঠি। অদ্ভূত এই বিলের কারণ খোঁজার চেষ্টা করে সে। কিন্তু কোনো কিছুতেই কাজ হয় না। উল্টো তাকে হুমকি দেয়া হয়, সময় মতো বিল পরিশোধ না করলে তার বাড়িতে ওয়ারেন্ট যাবে। এমন পরিস্থিতির চাপ সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করে ত্রিপাঠি। একটি ইলেকট্রিসিটি বিলকে কেন্দ্র করে দুর্বিসহ হয়ে উঠে সকলের জীবন।

ত্রিপাঠির আত্মহত্যায় পরিবার ছাড়াও সবচেয়ে বেশি আঘাত পায় তার দুই বন্ধু বিমল এবং নৌটি। শুরু হয় তাদের লড়াই। ত্রিপাঠির মৃত্যু আদৌ আত্মহত্যা নয়, সমাজের দুর্নীতি তাকে খুন করেছে। তাকে নিজের প্রাণ দিতে বাধ্য করেছে। এমন ধারণা নিয়ে সমাজের উঁচু স্তরের প্রত্যেকের সঙ্গে সংঘর্ষে নামতে থাকে বিমল। তার পাশে ঢাল হয়ে দাঁড়ায় নৌটি। তাদের লড়াই আদালতের চার দেয়াল অবধিও পৌঁছে যায়। কিন্তু অবশেষে কী হবে হবে এই লড়াইয়ের পরিণাম? উত্তর মিলবে আগামী ২১ সেপ্টেম্বর। কেননা, সবকিছু ঠিকমতো চললে ওইদিনই ‘বাত্তি গুল মিটার চালু’ ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।

এটি শহিদ কাপুর ও শ্রদ্ধা কাপুর জুটির দ্বিতীয় ছবি। এর আগে ২০১৪ সালে ‘হায়দার’ ছবিতে একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল তাদের। সে ছবির জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হিসেবে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার জিতেছিলেন শহিদ। শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর মনোনয়ন পেয়েছিলেন শ্রদ্ধাও। কিন্তু পুরস্কার জোটেনি। এবার পালা ‘বাত্তি গুল মিটার চালু’র।

পিডিএসও/হেলাল