বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক নির্মাণ করবেন শ্যাম বেনেগাল

প্রকাশ : ২৭ আগস্ট ২০১৮, ১৭:৪৬

অনলাইন ডেস্ক

বঙ্গবন্ধু শেষ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে নির্মিত হতে যাচ্ছে জীবনভিত্তিক চলচ্চিত্র। এটি নির্মাণ করবেন ভারতীয় নির্মাতা শ্যাম বেনেগাল।

সোমবার যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ছবিটির বিষয়ে এমনটাই জানিয়েছেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

আর তার সহযোগী পরিচালক হিসেবে বাংলাদেশ থেকেও একজন পরিচালক থাকবেন। যিনি একজন রাজনীতিবিদ, ব্যক্তি হিসেবে বঙ্গবন্ধুকে চিনেন, পরিচালক এবং চলচ্চিত্রকার হিসেবে তার গুণ থাকবে।

বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক ও মুক্তিযুদ্ধের ওপর প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণের বিষয়ে দুই দেশের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গত বছরের এপ্রিলে ভারত সফরের সময় সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষর হয়েছিল। সেই অনুযায়ী শুরু হচ্ছে নির্মাণ কাজ।

এ দিকে আগস্ট মাসের শুরুতে জানা যায়, বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক নির্মাণ করার জন্য ভারত থেকে তিনজন নির্মাতার নাম প্রস্তাব করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ছিলেন শ্যাম বেনেগাল, গৌতম ঘোষ এবং কৌশিক গাঙ্গুলি।

তারানা হালিম বলেন, ‘এখন স্ক্রিপ্ট হবে, গবেষণা হবে। তার আগে বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্ট থেকে অনুমতি নেওয়ার বিষয় রয়েছে। আমি চাই এটি এমন একটি চলচ্চিত্র হবে যাতে দুইশ বা তিনশ বছর পরও এর মধ্য দিয়ে প্রজন্মগুলো বঙ্গবন্ধুকে জানবে।’

এতে কারা অভিনয় করবেন, তা বাংলাদেশ এবং ভারতের পরিচালকরা ঠিক করবেন বলে জানান তারানা হালিম। এ মন্ত্রী চান বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকীর আগেই যেন চলচ্চিত্রটি নির্মিত হয়। তবে এর শুটিং কবে থেকে শুরু হবে তা জানাতে পারেননি তিনি।

গত ১২ জুলাই দিল্লিতে বাংলাদেশ ও ভারত সরকারের উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তাদের মধ্যে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে বলা হয়, বঙ্গবন্ধুর এই বায়োপিকের কাজ যেন দ্রুতগতিতে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

এ ছাড়া দুই দেশের যৌথ উদ্যোগে একাত্তরে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে একটি প্রামাণ্যচিত্রও তৈরি হবে। এর কাজ শেষ করার সময়সীমা ধরা হয়েছে ২০২১ সাল অর্থাৎ মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণজয়ন্তীতে।

শ্যাম বেনেগাল নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু, নেহরু ও সত্যজিৎ রায়কে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছেন। এ চলচ্চিত্রকার পদ্ম শ্রী, পদ্ম ভূষণ, দাদা সাহেব পালিনী, এএনআর ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন। তিনি সত্যজিৎ রায়ের সহকারি হিসেবেও কাজ করেছেন।

শ্যাম বেনেগাল ভারতে টেলিভিশনের জন্যও ডিসকভারি অব ইন্ডিয়ার ওপর ‘ভারত এক খোঁজ’ কিংবা ভারতীয় রেলকে নিয়ে ‘যাত্রা’র মতো প্রশংসিত কাজ করেছেন।

পিডিএসও/রিহাব