ঈদুল আজহার সিনেমা

প্রকাশ : ২২ আগস্ট ২০১৮, ০৯:৩৫

অনলাইন ডেস্ক

সিনেমা মুক্তিটা এখন উৎসবকেন্দ্রিক হয়ে পড়েছে। এবার ঈদেও মুক্তি পাচ্ছে কয়েকটি ছবি।

ক্যাপ্টেন খান

ঢাকাই চলচ্চিত্রে জনপ্রিয় চিত্রনায়ক শাকিব খান অভিনীত ‘ক্যাপ্টেন খান’ ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে এই ঈদে। ছবিটিতে শাকিব খানের নায়িকা হিসেবে রয়েছেন শবনম বুবলী। শান্ত এন্টারপ্রাইজ প্রযোজিত ছবিটি গত রোববার বিনা কর্তনে সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে। ছবিটি পরিবেশনার দায়িত্বে আছে শাপলা মিডিয়া।

বেপরোয়া

প্রথমবার জুটি হয়ে পর্দায় আসছেন রোশান ও ববি। তাদের ছবি ‘বেপরোয়া’। কলকাতার রাজা চন্দ পরিচালিত ছবিটি প্রযোজনা করেছেন জাজ মাটিমিডিয়া। ছবিটিতে ববি-রোশান ছাড়াও অভিনয় করেছেন শহীদুল আলম সাচ্চু, তারিক আনাম খান, নানা শাহ, রেবেকা, কমল পাটকেরসহ অনেকে। গতকাল ছবিটি সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে।

মাতাল

ড্যাশিং নির্মাতাখ্যাত শাহীন সুমনের পরিচালনায় ঈদে মুক্তির কথা রয়েছে ‘মাতাল’ ছবিটি। রোমান্টিক অ্যাকশন ও পারিবারিক গল্পের এই ছবিতে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়ক সায়মন সাদিক ও নবাগত অধরা খান। সনি মুভিজ ইন্টারন্যাশনাল পরিবেশিত এই ছবিটি নির্মিত হয়েছে ত্রিভুজ প্রেমের গল্প নিয়ে। ছবিটির চিত্রনাট্য করেছেন দেলওয়ার হোসেন দিল। ছবিটিতে সায়মন-অধরা ছাড়াও জুটি হিসেবে থাকছেন শিপন ও অরিন। আরো অভিনয় করছেন সাদেক বাচ্চু, জয় রাজ, শরীফসহ অনেকে।

জান্নাত

২০১৩ সালে ‘পোড়ামন’ ছবিতে একসঙ্গে জুটিবদ্ধ হয়েছিলেন সায়মন সাদিক ও মাহিয়া মাহি। এরপর আর তাদের একসঙ্গে দেখা যায়নি। তবে পাঁচ বছর পর আবারও জুটি হয়ে পর্দায় ফিরছেন পোড়ামনখ্যাত এই জুটি আসছে ‘জান্নাত’ ছবিটি নিয়ে। মোস্তাফিজুর রহমান মানিক পরিচালিত এই সিনেমায় আরো অভিনয় করেছেন আলীরাজ, মিশা সওদাগর, মারুফ প্রমুখ। ছবির কাহিনি লিখেছেন সুদীপ্ত সাঈদ খান। সংলাপ ও চিত্রনাট্য লিখেছেন আসাদ জামান।

মনে রেখো

তাপসী ঠাকুর প্রযোজিত ও ওয়াজেদ আলী সুমন পরিচালিত হার্টবিট প্রোডাকশনের ‘মনে রেখো’ ছবিটি রয়েছে মুক্তির তালিকায়। কলকাতার বনি ও বাংলাদেশের মাহিয়া মাহি অভিনীত ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির জন্য প্রস্তুত রয়েছে। পেয়েছে সেন্সর ছাড়পত্রও। ছবিতে আরো অভিনয় করেছেন মিশা সওদাগর, জয়ী, সোহেল, তুলিকা ও বিশ্বজিৎ।

এদিকে শেষ পর্যন্ত সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে ‘ক্যাপ্টেন খান’, ‘জান্নাত’, ও ‘মনে রেখো’ ছবিটি। তবে প্রতিবেদনটি লেখা পর্যন্ত জানা যায় ‘বেপোরোয়া’ ও ‘মাতাল’ ছবিটি সেন্সরে প্রদর্শিত হওয়ার কথা রয়েছে। আর সেন্সর ছাড়পত্র পেলেই এই দুুটি ছবির মুক্তি নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত পাওয়া যাবে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ঈদে কয়টি ছবি মুক্তি পাচ্ছে তা এখনো পরিষ্কার নয়।

পিডিএসও/তাজ