‘মন্ত্রী-এমপিরা চায় না প্রজারা রাজা হোক’

প্রকাশ : ০৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৬:৩৭ | আপডেট : ০৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৭:২৪

অনলাইন ডেস্ক

মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে গিয়ে আপিল করলেন আশরাফুল ইসলাম আলম ওরফে হিরো আলম। সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টায় ইসিতে যান তিনি।

বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে হিরো আলম তার ফেসবুক পেইজে নিজেই স্ট্যাটার্স লিখে জানালেন ‘আপিল করলাম আজ’। এরপর হিরো আলম সাংবাদিকদের বলেন, ‘জিরো থেকে হিরো হয়েছি। ষড়যন্ত্র করে আমাকে থামানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। মন্ত্রী-এমপিরা চায় না প্রজারা রাজা হোক। ভোট যুদ্ধে আমি শেষ পর্যন্ত লড়াই করে যাবো।’

এর আগে রোববার জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য জমা দেয়া মনোনয়নপত্র বাতিল করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।

বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনে হিরো আলমসহ ১৬ জন মনোনয়ন দাখিল করেছিলেন। এর মধ্যে বাছাইয়ের দিনে হিরো আলমসহ সাতজনের মনোনয়ন বাতিল করা হয়। তিনি সেই আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। বগুড়ার রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক ফয়েজ আহাম্মদ এ কথা জানান।

রিটার্নিং কর্মকর্তা বলেন, স্বতন্ত্র হিসেবে কেউ প্রার্থী হতে চাইলে বা নির্বাচন করতে চাইলে মনোনয়নপত্রের সঙ্গে ১ শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষর দাখিল করার কথা। কিন্তু তার মনোনয়নপত্রে নির্ধারিত ভোটারের স্বাক্ষর ছিল না।

এইচ এম এরশাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পাটির ‘লাঙ্গল’ মার্কার মনোনয়ন না পেয়ে বগুড়া-৪ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন সিডি ব্যবসায়ী থেকে তারকা বনে যাওয়া হিরো আলম।

মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ার পর হিরো আলম বলেন, ‘ষড়যন্ত্র করে মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। আমি নিয়ম মেনেই সব দাখিল করেছিলাম। কিন্তু ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। কোনো ষড়যন্ত্রে মাঠ ছাড়ব না। আপিল করব। আগেই বলেছিলাম শেষ দিন পর্যন্ত মাঠে থাকব, এখনো সে সিদ্ধান্তে অটল রয়েছি।’

পিডিএসও/রিহাব