১২০ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিলেন জাবির ৩ শিক্ষক

প্রকাশ : ২৯ মার্চ ২০২০, ১৪:৫৫ | আপডেট : ২৯ মার্চ ২০২০, ১৭:২৩

জাবি প্রতিনিধি

করোনাভাইরাস আতঙ্কে মানুষের চলাচল কমে গেছে। এতে বিপাকে পড়েছেন নিম্ন আয়ের খেটে খাওয়া মানুষ। কর্মহীন হয়ে পড়েছেন অনেকেই। এমন পরিস্থিতিতে দুর্ভোগে পড়া ১২০ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন শিক্ষক।

এরা হলেন—পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মশিউর রহমান, সহকারী অধ্যাপক শরিফুল ইসলাম ও প্রভাষক মাকসুদুর রহমান।

শনি ও রোববার তারা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়সংলগ্ন গেরুয়া, আমবাগান ও ইসলামনগর এলাকার এসব পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন।

আয়োজকরা প্রতিদিনের সংবাদকে জানান, করোনার বিস্তার ঠেকাতে গত ১৮ মার্চ থেকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রয়েছে। এতে ক্যাম্পাসের ওপর নির্ভরশীল রিকশাচালক, চা বিক্রেতা ও বিভিন্ন দোকানের শ্রমিক বিপাকে পড়েছেন। তাদের উপার্জন প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে। এছাড়া বাইরে বের হতে না পারায় ক্যাম্পাসসংলগ্ন এলাকার দিনমজুরদের আয়ের পথও বন্ধ। এরকম ১২০ পরিবারের তালিকা করে তাদের ১০ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ লিটার তেল ও ১টি সাবান বিতরণ করেছেন তারা। এর মধ্যে শনিবার প্রায় ৯০টি পরিবার ও রোববার অবশিষ্ট পরিবারগুলোর মাঝে খাদ্য বিতরণ করা হয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বেশ কজন শিক্ষক ও শিক্ষার্থী সহযোগিতা করেন।

গত ২৪ মার্চ সহযোগী অধ্যাপক মশিউর রহমান ক্যাম্পাসকেন্দ্রিক কর্মজীবী মানুষের সহযোগিতার জন্য স্বেচ্ছাসেবী দল গঠনের আগ্রহ প্রকাশ করে ফেসবুকে পোস্ট দেন। এরপর বিভাগের তিন শিক্ষার্থী নূরুল, নওশীন ও শিখা তার সঙ্গে স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করার আগ্রহ দেখান। এগিয়ে আসেন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শরিফুল ইসলাম ও প্রভাষক মাকসুদুর রহমান। গত কয়েকদিন ধরে তিনি ও ওই তিন শিক্ষার্থী ক্যাম্পাস-সংলগ্ন এলাকায় গিয়ে দরিদ্র পরিবারের তালিকা তৈরি করেন। এরপর তারা প্রথম ধাপে সবচেয়ে দরিদ্র পরিবারগুলোকে সহযোগিতা দিয়েছেন। 

পিডিএসও/হেলাল