বিশেষ শর্তে চবির অবরোধ শিথিল

প্রকাশ : ০২ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:৩২ | আপডেট : ০২ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:৪৬

চবি প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই নেতাকে কুপিয়ে জখম করায় জড়িত ভিএক্স গ্রুপের নেতা মিজানুর রহমান বিপুল ও প্রদীপ চক্রবর্তী দুর্জয়ের গ্রেফতার ও স্থায়ী বহিষ্কার এবং ছাত্র উপদেষ্টা সিরাজ উদ দৌলার পদত্যাগের দাবিতে ডাকা অনির্দিষ্টকালের অবরোধের আপাতত শিথিল করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি রেজাউল হক রুবেল প্রতিদিনের সংবাদকে বলেন, মহামান্য রাষ্ট্রপতির চট্টগ্রাম আগমন উপলক্ষে আমরা আপাতত অবরোধ শিথিল করেছি। তিনদিনের মধ্যে আমাদের দাবি পূরণ না হলে আমরা আবারও কঠোর আন্দোলনে যাবো।

এদিকে অবরোধের প্রথম দিনে ক্যাম্পাস থেকে শহরগামী কোনো শিক্ষক বাস ছেড়ে যায়নি। শাটল ট্রেন চললেও তাতে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল খুবই কম। সকাল থেকে জিরো পয়েন্ট অবরোধ করে মিছিল করতে থাকে অবরোধকারীরা। এ সময় মিছিল থেকে ‘সিরাজদৌলাহর পদত্যাগ চাই, বিপুল-দুর্জয় রেহাই নাই’সহ বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে তারা।

শিক্ষক বাস না ছাড়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন দপ্তরের প্রশাসক প্রফেসর ড. রাশেদ উন নবী প্রতিদিনের সংবাদকে বলেন, অবরোধকারীরা বাস চালকদের হুমকি ধমকি দেওয়ায় নিরাপত্তা ঝুঁকির কারণে শিক্ষক বাস ছেড়ে যায়নি। তবে একটি বাস ছেড়ে গেছে। পরিবেশ স্বাভাবিক হলে যথারীতি বাস চলবে।

অবরোধের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর প্রফেসর এস এম মনিরুল হাসান বলেন, ট্রেন চলাচল করছে বিধায় শিক্ষক বাসগুলো চালুর প্রক্রিয়া চলছে। আমাদের চালকেরা নিরাপদ বোধ করছে না। বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম দ্রুত স্বাভাবিক করতে আমরা চেষ্টা করছি।

প্রসঙ্গত, পূর্বের ঘটনার জেরে রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই নং গেটসংলগ্ন ১১ মাইল এলাকায় শহীদ তাপস স্মৃতি সংসদের উপদেষ্টা ও শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি নাসির উদ্দিন সুমন (সুমন নাছির) ও ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল নাহিয়ান রাফিকে হাটহাজারী যাওয়ার পথে এলোপাথাড়ি কুপিয়েছে ভিএক্স গ্রুপের কর্মীরা। এ ঘটনায় মদদদাতা ও তাপস হত্যা মামলার আসামী ভিএক্স গ্রুপের নেতা মিজানুর রহমান বিপুল ও প্রদীপ চক্রবর্তী দুর্জয়কে অবিলম্বে গ্রেফতার ও বহিষ্কার এবং ছাত্র উপদেষ্টার পদত্যাগের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে অনির্দিষ্টকাল অবরোধের ডাক দেয় শহীদ তাপস স্মৃতি সংসদ নামে একটি সংগঠন। এ সময় জিরো পয়েন্টে কয়েকটি গাড়ি ও ওয়াচ টাওয়ার ভাংচুর করা হয়। নাটকীয়ভাবে সে সময় কয়েক মিনিট বিশ্ববিদ্যালয়ের বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়।

পিডিএসও/হেলাল