মাদক-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ইবিতে সমাবেশ

প্রকাশ : ২৬ নভেম্বর ২০১৯, ১৮:৫৯ | আপডেট : ২৬ নভেম্বর ২০১৯, ১৯:৫৫

ইবি প্রতিনিধি

মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ছাত্র-শিক্ষক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। কুষ্টিয়া জেলা পুলিশের আয়োজনে মঙ্গলবার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

কুষ্টিয়া পুলিশ সুপার এস এম তানভির আরাফতের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন উর রশিদ আসকারী। সমাবেশে প্রধান বক্তার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পুলিশ খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি (ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল) ড. খন্দকার মহিদ উদ্দীন।

জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোলাম সবুর ও ফারজানা আক্তারের যৌথ সঞ্চালনায় সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা, প্রক্টর (দায়িত্বপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্মন প্রমুখ।

সমাবেশে প্রধান বক্তার বক্তব্যে ডিআইজি ড. খন্দকার মহিদ উদ্দীন বলেন, আমরা যারা মাদক নেয়, তাদের মধ্যে অনেক সাবস্ট্যান্স থাকে। এটি সব সময় আপনাকে ঘোরের মধ্যে রাখবে, আপনি স্থির থাকতে পারবেন না। গাঁজা টান দিয়ে একতারা-দোতারা বাঁজানো যায় কিন্তু শরীর-জীবনের একতারা কিন্তু ছিঁড়ে যায়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন উর রশিদ আসকারী বলেন, চতুর্থ শিল্প-বিপ্লবের অগ্রযাত্রা যেভাবে শুরু হয়েছে, তাতে পার্টনারশিপ ছাড়া কখনো উন্নতির চরম শিখরে পৌঁছানো সম্ভব হবে না। বাংলাদেশ অতীতের যেকোন অবস্থান থেকে অনেকাংশে এগিয়েছে। কিন্তু এগুলো সব ধূলিস্যাৎ হয়ে যাবে যদি এদেশের যুব সমাজ মাদক-সন্ত্রাসে ও জঙ্গিবাদে বুঁদ হয়ে থাকে।’

এসময় শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ৪১ এর বাংলাদেশ (ভিশন ৪১)। সেই দিনের নেতৃত্ব তোমাদের হাতেই। তোমরাই আগামীতে এ দেশকে নেতৃত্ব দিবে। তাই চিন্তা, চেতনায় সবসময় তোমরা নিজেদেরকে সেভাবেই প্রস্তুত করবে। আর বিশ্বিবিদ্যালয়ে এসব সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের চিন্তাধারাকে কোনোভাবেই আশ্রয়-প্রশ্রয় দিবে না।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ, আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. রেবা মন্ডল, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. নাসিম বানু, সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমানসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

পিডিএসও/তাজ