ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়

প্রভোস্টের পদত্যাগ চেয়ে মধ্যরাতে ছাত্রীদের বিক্ষোভ

প্রকাশ : ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:০৬ | আপডেট : ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ১৩:৫১

ইবি প্রতিনিধি

শিক্ষার্থীদের সঙ্গে খারাপ আচরণসহ বিভিন্ন অভিযোগের দায়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্টের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা। সোমবার রাত ১০টার দিকে হলের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিয়ে এ বিক্ষোভ করেন তারা।

জানা যায়, বিভিন্ন সময় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে খারাপ আচরণ, হুমকি ধামকি, বাবা-মা তুলে কথা বলাসহ বিভিন্ন অভিযোগে দীর্ঘদিন ধরে হল প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. শেলীনা নাসরীনের পদত্যাগ দাবি করে আসছেন হলের শিক্ষার্থীরা।

সর্বশেষ সোমবার রাত ১০টার দিকে হলের প্রধান ফটক খুলে প্রভোস্টের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ করেন তারা। এ সময় ‘স্বৈরাচার প্রভোস্টের পদত্যাগ চাই’, ‘দায়িত্ব অবহেলা আর মানবো না’, ‘ভিসি স্যার আমরা এর সমাধান চাই’ এমন ফেস্টুন প্রদর্শন করেন তারা।

পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা এবং প্রক্টরের (অতিরিক্ত) দ্বায়িত্বে থাকা অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্মন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তাদের সাথে কথা বলার চেষ্টা করেন। কিন্তু শিক্ষার্থীরা তার সঙ্গে কথা বলতে রাজি না হয়ে সরাসরি উপাচার্যের সঙ্গে কথা বলার দাবি জানান।

এরপর রাত ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী ঘটনাস্থলে যান। এরপর হল প্রভোস্টের কক্ষে রাত ১২টা পর্যন্ত তিনি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা করেন। আলোচনায় শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের কাছে প্রভোস্টের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ তুলে ধরেন।

এরপর উপাচার্য শিক্ষার্থীদের অভিযোগ শুনে তাদের কাছ থেকে সকাল পর্যন্ত সময় নেন। একই সাথে প্রশাসনের বাকি কর্তাব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলে শিক্ষার্থীদের বিষয়গুলো নিয়ে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত দেওয়ার আশ্বাস দেন তিনি। পরে উপাচার্যের আশ্বাসে আন্দোলন স্থগিত করেন শিক্ষার্থীরা।

উল্লেখ্য, গত ১ অক্টোবর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে হল প্রভোস্ট শেলীনা নাসরীনের বিরুদ্ধে ১৮টি লিখিত অভিযোগ করেন হলের শিক্ষার্থীরা।

পিডিএসও/হেলাল