জাবিতে ছাত্রলীগ নেতার ধাওয়ায় ছাত্রদল নেতাদের দৌড়

প্রকাশ : ০৯ অক্টোবর ২০১৯, ১৮:৫৫

জাবি প্রতিনিধি

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের হত্যাকারীদের শাস্তি ও ভারতের সঙ্গে করা চুক্তি বাতিলের দাবিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে ছাত্রদল।

বুধবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রদান ফটক থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে অমর একুশের পাদদেশে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন শাখা ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। তবে কর্মসূচি শেষ করার আগেই শাখা ছাত্রলীগের এক নেতার ধাওয়ায় দৌড়ে ক্যাম্পাস ছাড়েন ছাত্রদল নেতাকর্মীরা।

সমাবেশে শাখা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম সৈকত বলেন, ‘শুধুমাত্র স্বাধীন দেশের অস্তিত্ব রক্ষায় দেশের পক্ষ হয়ে কথা বলার কারণে ছাত্রলীগ একজন নিরপরাধ মেধাবী ছাত্রকে হত্যা করলো। এর মাধ্যমে তারা বাংলাদেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না এবং অন্য দেশের তাঁবেদারিতে ব্যস্ত। এখন দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করার সময় এসেছে।’

এসময় অন্যান্যের মধ্যে শাখা ছাত্রদলের সভাপতি সোহেল রানা, সহ-সভাপতি নবীনুর রহমান নবীন, ইব্রাহিম খলির বিপ্লব, মিজানুর রহমান রনি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন মোহাম্মদ বাবর, শামীম হোসেন সহ ছাত্রদল নেতা ইস্রাফিল চৌধুরী সোহেল, আব্দুল কাদের মার্জুক, হুমায়ুন হাবিব হিরণ, মেহেদী হাসান, জরজিস মোহাম্মদ ইব্রাহিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে সমাবেশ শেষ করে মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাস ত্যাগ করার সময় ছাত্রদল নেতাকর্মীদের পিছু নেন শাখা ছাত্রলীগের পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুল হক রাফা। এক পর্যায়ে ছাত্রদল নেতাকর্মীরা দৌড়ে ক্যাম্পাস থেকে বেরিয়ে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে চলে যান।

মাহবুবুল হক রাফা বলেন, আমাকে দেখে ছাত্রদল নেতা শামীম ভাই আমার দিকে তেড়ে আসে। আমি বিষয়টি তাদের সভাপতি-সম্পাদককে জানাতে গেলে সবাই দৌড় দেয়।এ বিষয়ে শাখা ছাত্রদলের সভাপতি সোহেল রানা বলেন, ছাত্রলীগের উস্কানিমূলক আচরণ প্রমাণ করে তারা আবরার ফাহাদ হত্যা সমর্থন করে।

পিডিএসও/তাজ