ভিসি-ডিনের পদত্যাগ চায় ছাত্রদল

ডিন বলছেন বিষয়টি নিয়ম সিদ্ধ

প্রকাশ : ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৪:৪৬

ঢাবি প্রতিনিধি

চিরকুটের মাধ্যমে ভর্তি প্রক্রিয়ায় জড়িতদের শাস্তির দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদল। 

বিক্ষোভ মিছিল থেকে তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান ও ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলামের পদত্যাগের দাবির পাশাপাশি অবৈধভাবে ভর্তি হয়ে নির্বাচিত ডাকসুর সদস্যদের পদ থেকে অব্যাহতি ও বহিষ্কারেরর দাবি জানান। 

বুধবার দুপুরে ছাত্রদলের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি আল মেহেদী তালুকদারের নেতৃত্বে এই বিক্ষোভ মিছিল হয়। মিছিলটি রাজু ভাস্কর্যের সামনে থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে শেখ রাসেল টাওয়ারের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

এর আগে মঙ্গলবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে যথাযথ নিয়ম মেনেই শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা হয়েছে বলে দাবি করেছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় অনুষদের ডিন অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম।

গত রোববার একটি জাতীয় দৈনিকে ‘পরীক্ষা ছাড়াই ভর্তি হয়ে ডাকসু নেতা’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। যেখানে ডাকসু নির্বাচনে অংশ নিতে ইচ্ছুক ছাত্রলীগের বিভিন্ন পদস্থ সাবেক ও বর্তমান মোট ৩৪ জন নেতাকে অবৈধভাবে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ব্যাংকিং অ্যান্ড ইনস্যুরেন্স বিভাগের মাস্টার অব ট্যাক্স ম্যানেজমেন্ট প্রোগ্রামে ভর্তি করানোর অভিযোগ আনা হয়। ভর্তির নীতিমালা অনুযায়ী, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেই কেবল ওই প্রোগ্রামে ভর্তি হওয়া যায়। কিন্তু তাদের কেউই তাতে অংশ নেননি। প্রতিবেদনে উপাচার্য ও ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন কর্তৃক ‘বিশেষ চিরকুট’ প্রদানের মাধ্যমে এই ভর্তি-প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার অভিযোগও করা হয়।

এরই প্রেক্ষিতে ডাকা সংবাদ সম্মেলনে শিবলি রুবায়েতুল ইসলাম বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পাস করা শিক্ষার্থীরা কোনো ধরনের লিখিত পরীক্ষা ছাড়াই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের সন্ধ্যাকালীন কোর্সগুলোয় ভর্তি হতে পারেন। তিনি আরো বলেন, এইক্ষেত্রে তাদের কেবল মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নিতে হয়। এমনকি এই ভর্তির জন্য কোনো সার্কুলারেরও প্রয়োজন হয় না। 

তবে এই ধরনের নিয়মের লিখিত কোনো অনুলিপি সংবাদ সম্মেলনে তিনি উপস্থাপন করেননি। কবে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে, সেটিও স্পষ্ট করে বলতে পারেননি।

পিডিএসও/হেলাল