ধর্মঘটের ঘোষণা

ডাকসু নির্বাচন : ছাত্রলীগ ছাড়া সব প্যানেলের ভোট বর্জন

প্রকাশ : ১১ মার্চ ২০১৯, ১৪:৪১ | আপডেট : ১১ মার্চ ২০১৯, ১৪:৫৯

অনলাইন ডেস্ক

দীর্ঘ ২৮ বছর পর অনুষ্ঠিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনে ব্যাপক অনিয়ম, ভোটগ্রহণে বাধা এবং কারচুপির অভিযোগ এনে ছাত্রলীগের প্যানের ছাড়া অন্য সব প্যানেল নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে।

একই সঙ্গে অবিলম্বে নতুন তফসিল ঘোষণার দাবি জানিয়েছে তারা। এছাড়া কাল মঙ্গলবার থেকে ছাত্র ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে প্যানেলগুলো। এ সময় সব ক্লাস বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে তারা।

সোমবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে এক সংবাদ সম্মেলনে এই চার প্যানেলের পক্ষ থেকে প্রগতিশীল ছাত্রজোটের ভিপি প্রার্থী লিটন নন্দী এই ঘোষণা দেন। এর পরে মধুর ক্যান্টিনে আলাদা সংবাদ সম্মেলন করে ছাত্রদলও ভোট বর্জনের ঘোষণা দেয়।

এ সময় নতুন করে তফসিল ঘোষণা করে পুনঃনির্বাচনের দাবিসহ বেশ কয়েকটি দাবি জানানো হয়।

লিটন নন্দী বলেন, আমরা সম্মিলিতভাবে বলছি, এই প্রহসন ও জালিয়াতির নির্বাচন আমরা ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছি। সেই সঙ্গে দাবি জানাচ্ছি, এই নির্বাচন বাতিল করে নতুন ভাবে তফসিল প্রকাশ করতে হবে।

ভোট বর্জন করেছে— প্রগতিশীল ছাত্রজোট, কোটা সংস্কার আন্দোলনের ব্যানারে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, স্বতন্ত্র জোট এবং স্বাধিকার স্বতন্ত্র পরিষদ। এই ৪ প্যানেল ছাড়াও বেশ কিছু স্বতন্ত্র প্রার্থীও ভোট বর্জন করেছেন।

পিডিএসও/তাজ