সিল মারা বস্তাভর্তি ব্যালট, ভোট স্থগিত

কুয়েত মৈত্রী হলের প্রভোস্ট পরিবর্তন

প্রকাশ : ১১ মার্চ ২০১৯, ১০:২৭ | আপডেট : ১১ মার্চ ২০১৯, ১০:৫৬

অনলাইন ডেস্ক

কুয়েত মৈত্রী হলের ভারপ্রাপ্ত প্রভোস্ট শবনম জাহানকে সরিয়ে মাহমুদা নাসরিনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এর আগে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের মুখে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের ভোটগ্রহণের শুরুতেই বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হলে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে।

ভোটগ্রহণের আগেই সিল মারা ব্যালট পাওয়ার অভিযোগে হল প্রভোস্ট শবনম জাহান সরিয়ে মাহমুদা নাসরিনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

আজ সোমবার ভোটগ্রহণ শুরুর আগেই ব্যালটে সিল মারার অভিযোগ তুলে সেখানে বিক্ষোভ করেন শিক্ষার্থীরা। ফলে ভোটগ্রহণ শুরু হয়নি এই হলে। ভোট বর্জনের পাশাপাশি হল প্রভোস্টসহ প্রক্টরের পদত্যাগ দাবি করেন শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবি, প্রায় ১ হাজার সিল মারা ব্যালট পেপার উদ্ধার করেছেন তারা। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হলে ভোটগ্রহণ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেন।

আজ সকাল ৯টায় বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হলের সামনে দেখা যায়, আগে থেকে সিল মারা ব্যালট পেপার নিয়ে শিক্ষার্থীরা হলের গেটের সামনে বিক্ষোভ করছেন। এসব সিল মারা ব্যালট পেপার পৌঁছে গেছে শিক্ষার্থীসহ সাংবাদিকদের কাছেও।

হলের গেট দিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা অধ্যাপক ড. মো. সামাদ গাড়ি নিয়ে বের হওয়ার চেষ্টা করলেও আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা তাকে আটকে দেন। ড. সামাদ গাড়ি থেকে নেমে শিক্ষার্থীদের বোঝানোর চেষ্টা করেন।

পি​ডিএসও/হেলাল