‘ওরা অদম্য ২১ জন’

প্রকাশ : ১২ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৫:৩১

ঢাবি প্রতিনিধি

‘ওরা অদম্য ২১ জন’। কেউ সবজি বিক্রেতার সন্তান, কেউবা সহায়-সম্বলহীন মায়ের যক্ষ্মের ধন। দুঃখজীবনের গল্পগুলো ভিন্ন ভিন্ন হলেও ‘অদম্য মেধার’ পয়েন্টে কিন্তু সবাই এক, অভিন্ন। শুধু তাই নয়, বুয়েট, চুয়েট, মেডিকেল কিংবা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মত উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সদ্য চান্সপ্রাপ্তও তারা। কিন্তু সংগ্রামের জীবনে দু’বেলা ভাতও যাদের পেটে ঢোকে না, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ফি’র টাকা যোগান তো তাদের কাছে স্বপ্ন।

এলজি’র আর্থিক সহায়তায় শিক্ষাবিষয়ক নিউজ পোর্টাল ‘দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাস’ হার না  মানা এমন অপ্রতিরোধ্য শিক্ষার্থীদের পাশে দাড়িয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গুলশানের এলজি বাংলাদেশ অফিসে ‘টিডিসি শিক্ষা সহায়তা প্রকল্প’র আওতায় অদম্য ২১ শিক্ষার্থীর প্রত্যেককে ভর্তি ফি বাবদ ১৭ হাজার টাকা তুলে দেয়া হয়। 

আয়োজকরা জানান, সব শিক্ষার্থীই মেধাবী। প্রত্যেকের মাঝেই স্বপ্ন ও সম্ভাবনা আছে। কিন্তু অর্থাভাবে অনেকের পক্ষেই সেই সম্ভাবনা উন্মোচন করা কঠিন হয়ে পড়ে। সমাজ ও শিক্ষার প্রতি সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে সেটিই বাস্তবায়ন করছে এলজি ও দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাস ডট কম।

একাধিক শিক্ষার্থী জানান, ‘অনেক সংগ্রামের মধ্য দিয়ে বেড়ে উঠেছি। এখন আর পেছনে তাকাতে চাই না। উচ্চশিক্ষা নিয়ে দেশ ও জাতির সেবা করতে চাই’। তারা জানান, অর্থাভাবে অনেক সময় তাদের লেখাপড়া বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে। কিন্তু পিছু হটেননি। উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তি ফি বাবদ সহায়তা পেয়ে আপ্লুত হয়ে পড়েন তারা।

আর্থিক সহায়তা প্রদানকালে এলজি’র সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট বে ডু ইয়ং প্রধান অতিথি হিসেবে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে কথা বলেন এলজি’র ভাইস প্রেসিডেন্ট উন দা সক, এলজি’র সিএসআর টিম লিডার কিম মিন সিওক, টিডিসি শিক্ষা সহায়তা’র সমন্বয়ক ইরফান হক। এলজি বাংলাদেশ’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডি কে সনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে এলজি বাংলাদেশ’র হেড অব কনজ্যুমার ইলেক্ট্রনিক্স মাহমুদুল হাসান স্বাগত বক্তব্য রাখেন। 

বৃত্তিপ্রাপ্তরা হলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সৈয়দা তাজমুন খানম, আফরিন আক্তার, ফাওজুল কবির, দেলোয়ার হোসেন, জাকিয়া খাতুন, হাবিবুর রহমান, ইকবাল হায়দার, আবদুর রহমান ও ওমর ফারুক, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বেলাল উদ্দিন ও তৌহিদুল ইসলাম ফয়সাল, ঢাকা মেডিকেল কলেজের আরাফাত হোসেন, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজের শামিম মুন্সী, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের মাহাবুবুর রহমান, বুয়েটের নাজমুল ইসলাম অপু, চুয়েটের শৈবাল বড়ুয়া, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের নাফিজুর রহমান, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের চানু হোসেন, কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বপ্না আক্তার এবং কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের আব্দুস সালাম। 

পিডিএসও/অপূর্ব