জাবিতে উপাচার্যবিরোধী শিক্ষকদের আন্দোলনের হুশিয়ারী

প্রকাশ : ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ১৯:৩৫

জাবি প্রতিনিধি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের সমর্থক শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনার সম্ভাবনাকে উড়িয়ে দিয়ে অচিরেই কঠোর আন্দোলনে নামার হুশিয়ারি দিয়েছেন উপাচার্যবিরোধী শিক্ষকরা। 

মঙ্গলবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের গাণিতিক ও পদার্থ বিষয়ক অনুষদের ডিন অফিসে আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের একাংশের সংগঠন ‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজ’ আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ হুশিয়ারি দেন সংগঠনটির সম্পাদক ফরিদ আহমেদ।

সংবাদ সম্মেলনে ফরিদ আহমেদ বলেন, ‘উপাচার্য ও তার অনুগত শিক্ষকদের সংগঠন (বঙ্গবন্ধু-আদর্শের শিক্ষক পরিষদ) অ্যাক্ট, সংবিধি ও অধ্যাদেশের অপব্যাখ্যা ও অপব্যবহার, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি লুন্ঠন, বিতর্কিত নিয়োগ ও নিয়োগ বানিজ্য, নিপীড়ন, সম্পদের অপব্যয় ও অপব্যবহার, প্রশাসনে উপাচার্য পরিবারের অনৈতিক হস্তক্ষেপ ও দুর্নীতিসহ মিথ্যাচার ও পেশিশক্তি প্রদর্শন করে শিক্ষকদের সম্মানহানী ও হয়রানির মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের অপূরনীয় ক্ষতি করেছেন। এ অবস্থান অবসান হওয়া জরুরি। আমরা এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি। পাশাপাশি এ অবস্থার অবসানের জন্য আগামী কয়েকদিনের মধ্যে কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা দেওয়া হবে। এবার আন্দোলনে নামলে আমরা আর ফিরবোনা। জয় নিয়েই ঘরে ফিরবো।’

এছাড়া তারা উপাচার্যপন্থি শিক্ষকদের সঙ্গে কোনও ধরণের আলোচনায় বসবেন না বলেও জানান তিনি। ফরিদ আহমেদ বলেন, ‘যারা আমাদের শিক্ষকদেরকে লাঞ্ছিত করেছে, তাদের সঙ্গে আমরা আলোচনায় বসতে পারিনা। আমরা মনে করছি গত ১৭ এপ্রিলের ঘটনার পর তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসার মত পরিবেশ নেই। সেক্ষেত্রে আন্দোলনই একমাত্র সমাধান।’

এসময় অন্যান্যের মধ্যে ‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজ’-এর সভাপতি অধ্যাপক অজিত কুমার মজুমদার, সাবেক উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক আবুল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

পিডিএসও/অপূর্ব