ইবি ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি আসনে লড়বে ২২ শিক্ষার্থী

প্রকাশ : ১৩ অক্টোবর ২০১৮, ১৫:৪০

এ আর রাশেদ, ইবি প্রতিনিধি

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বে ২২ জন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী। ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৩ থেকে ৭ নভেম্বর পর্যন্ত।

শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্ট্রার অফিস সূত্রে জানা যায়, গত ১২ অক্টোবর শুক্রবার রাত ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষে ভর্তির আবেদন শেষ হয়। এবছর ভর্তি পরীক্ষায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচটি অনুষদের অধীন ৩৩টি বিভাগে ২ হাজার ২৭৫টি আসনের বিপরীতে ৪৮ হাজার ৭১৯ জন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর আবেদন জমা পড়েছে। 

এর মধ্যে ধর্মতত্ব অনুষদভুক্ত ‘এ’ ইউনিটের ২৪০টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছে ১ হাজার ৯৯৬ জন ভর্তিচ্ছু। এই ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেবে ৯ জন শিক্ষার্থী। 

মানবিক ও সমাজবিজ্ঞান এবং আইন ও শরীয়াহ অনুষদভুক্ত ‘বি’ ইউনিটের ১০৩৫টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছে ২১ হাজার ২০৮ জন। সেই হিসেব অনুযায়ী ‘বি’ ইউনিটে প্রতি আসনের জন্য লড়বে ২২ জন ভর্তিচ্ছু। 

ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদভুক্ত ‘সি’ ইউনিটে ৪৫০ টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছে ৭ হাজার ১৪৭ জন। ‘সি’ ইউনিটে প্রতি আসনের জন্য ভতি যুদ্ধে অংশ নেবে ১৬ জন ভর্তিচ্ছু। 

এছাড়া ফলিক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদভুক্ত ‘ডি’ ইউনিটের ৫৫০টি আসনের বিপরীতে ভর্তি পরীক্ষার জন্য আবেদন করেছে ১৮ হাজার ৩৬৮ জন। ‘ডি’ ইউনিটে প্রতি আসনের জন্য ভর্তি পরীক্ষায় লড়বে ৩৪ জন ভর্তিচ্ছু।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন উর রশিদ আসকারী বলেন, ‘নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা ও স্বাভাবিক পরিবেশে সচ্ছতার মধ্য দিয়ে এবারের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠানের কার্যক্রম চলছে। দেশসেরা মেধাবিদের ভর্তি করাতে নেয়া হয়েছে নানা পদক্ষেপ। প্রতিবারের ন্যায় এবারও যেকোনও ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে মাঠে থাকবে ভ্রাম্যমান আদালত। এছাড়া যাদের বিরুদ্ধে অতীতে ভর্তি বাণিজ্য বা প্রক্সির সঙ্গে জড়িত থাকার মতো ঘটনার অভিযোগ রয়েছে এবছর আগে থেকেই তাদেরকে বাড়তি নজড়দারিতে রাখা হচ্ছে।’

পিডিএসও/এআই