জাবি শিক্ষার্থীদের ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ

প্রকাশ : ০২ আগস্ট ২০১৮, ১৭:০৭

তহিদুল ইসলাম, জাবি

স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের ৯ দফা দাবির সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে নিরাপদ সড়কের দাবিতে প্রায় দেড় ঘণ্টা ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১২ টা থেকে পৌনে ২টা পর্যন্ত মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন শিক্ষার্থীরা। এতে সড়কের দুই পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে দুপুর পৌনে দুইটার দিকে শিক্ষার্থীরা সড়ক ছেড়ে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করেন। শিক্ষার্থীরা চলে যাওয়ার পর সড়কে যানবাহন চলা শুরু হয়েছে।

এর আগে বেলা পৌনে ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার এলাকা থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের জয় বাংলা গেট সংলগ্ন মহাসড়কে অবস্থান নেন। মিছিলে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থীরাও অংশ নেয়। শিক্ষার্থীদের দাবির প্রতি সংহতি জানিয়ে বাংলা বিভাগের অধ্যাপক শামীমা সুলতানা, ইতিহাস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আনিছা পারভীন জলি, ইংরেজি বিভাগের সহকারি অধ্যাপক সুমনা গুপ্তা ও চারুকলা বিভাগের প্রভাষক শামীম রেজা সড়কে অবস্থান নেন। সড়কে অবস্থান নিয়ে শিক্ষার্থীরা ‘আমার ভাই কবরে, তুমি কেন বাহিরে’, ‘এক দফা এক দাবি, শাহজাহান তুই কবে যাবি’ এ ধরণের স্লোগান দিতে থাকেন। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সড়কে একটি পথ নাটক প্রদর্শন করেন।

পরে দুপুর দেড়টার দিকে জয় বাংলা গেটের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে মহাসড়ক দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে আসেন। এর কিছুক্ষণ পরে শিক্ষার্থীরা সড়ক ছেড়ে দেন। 

সড়কে অবস্থানকালে শিক্ষার্থীরা চালকদের লাইলেন্স পরীক্ষা করেন। যারা লাইসেন্স দেখাতে ব্যর্থ হন তাদের কাছ থেকে শিক্ষার্থীরা গাড়ির চাবি নিয়ে নেন। এ সময় লাইসেন্স দেখাতে ব্যর্থ হওয়ায় শিক্ষার্থীরা পুলিশের একটি পিকআপ ভ্যানের চাবিও নিয়ে নেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর সিকদার মো. জুলকারনাইন বলেন, কোনও ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। শিক্ষার্থীরা সড়ক ছেড়ে ক্যাম্পাসে চলে গেছে। 
এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল আউয়াল বলেন, কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। তবে রাস্তা পুরোপুরি ক্লিয়ার হয়নি। আমরা তদারকি করছি।

পিডিএসও/রিহাব