ঢাবিসহ সারাদেশে প্রজ্ঞাপন চেয়ে বিক্ষোভ

প্রকাশ : ১৪ মে ২০১৮, ১১:৪০ | আপডেট : ১৪ মে ২০১৮, ১৩:৫৩

অনলাইন ডেস্ক

সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপন জারির দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজগুলোয় অনির্দিষ্টকালের ছাত্র ধর্মঘট ও অবস্থান কর্মসূচি চলছে।

সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে থেকে একটি বিক্ষেভ মিছিল শুরু হয়। এতে হাজার হাজার সাধারণ শিক্ষার্থী ও চাকরি প্রত্যাশী অংশ নিয়েছে। এ সময় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা বলছেন, প্রজ্ঞাপন না হওয়া পর্যন্ত ধর্মঘট চলবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় মিছিল থেকে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন স্লোগান দিচ্ছেন, ‘আর নয় কালক্ষেপন দিতে হবে প্রজ্ঞাপন’, ‘হামলা করে আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না’, ‘বঙ্গবন্ধুর বাংলায় বৈষম্যের ঠাঁই নেই’, ‘কোটা দিয়ে কামলা নয় মেধা দিয়ে আমলা চাই’ ইত্যাদি।

অপরদিকে ঢাকার পাশাপাশি চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, কুমিল্লাতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট পালন করছে। এছাড়া কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপন জারি না হওয়ায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন করে শাটল ট্রেন আটকে বিক্ষোভ করছে আন্দোলনকারীরা।

গত ৮ এপ্রিল থেকে টানা পাঁচ দিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের প্রায় সব পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলন করেন শিক্ষার্থীরা। ১২ এপ্রিল জাতীয় সংসদের অধিবেশনে কোটা পদ্ধতি বাতিল ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী।

সর্বশেষ গতকাল রোববার বিকাল পাঁচটার মধ্যে প্রজ্ঞাপন জারি না হলে আজ সোমবার থেকে সারাদেশের সব কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট পালন ও সব বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করার ঘোষণা দেয়া হয়। যদিও গতকাল রোববার বিকাল ৫টা পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনো প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়নি। 

পিডিএসও/তাজ