রাবির দুই বিভাগের শিক্ষার্থীদের দ্বন্দ্বে অনির্দিষ্টকালের ক্লাস বর্জন

প্রকাশ : ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৮:২২ | আপডেট : ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৮:৫৫

রাবি প্রতিনিধি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফোকলোর ও ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থীরদের মধ্যে দ্বন্দ্বে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে ফোকলোর বিভাগের শিক্ষার্থীরা। ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে শ্রেণিকক্ষে বিশৃংখলা ও শিক্ষার্থীদের সাথে দূর্ব্যবহারের অভিযোগ তুলে বুধবার দুপুর ১২টার দিকে সৈয়দ ঈসমাইল হোসেন সিরাজী ভবনে এ ঘটনা ঘটে। পরে ফোকলোর বিভাগের শিক্ষার্থীরা নিজেদের শ্রেণি কক্ষে তালা দিয়ে এর প্রতিবাদ করে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ফোকলোর বিভাগের শিক্ষার্থী সূত্রে জানা যায়, বুধবার সকাল ৯টার দিকে ভবনের ১২২ নং কক্ষে চতুর্থ বর্ষের ক্লাস নিচ্ছিলেন ফোকলোর বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. উদয় শংকর বিশ্বাস। এসময় পাশের ১২১ নং কক্ষে অবস্থানরত ইতিহাস বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীরা বিশৃঙ্খলা করছিল। এতে পাঠদানে সমস্যা হওয়ায় চতুর্থ বর্ষের এক শিক্ষার্থী তাদেরকে গোলমাল করতে নিষেধ করেন। কিন্তু এরপরেও তারা গোলমাল বন্ধ করেনি।

পরে নিষেধ অমান্য করাকে কেন্দ্র করে ফোকলোর বিভাগের শিক্ষার্থীদের সাথে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থীরা। একপর্যায়ে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন দুই বিভাগের শিক্ষার্থীরা। পরে ফোকলোর বিভাগের শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বরাবর লিখিত অভিযোগ দেন।

ফোকলোর বিভাগের শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থীরা প্রায় তাদের পাঠদানের সময় পাশের কক্ষে বিশৃঙ্খলা করে। এছাড়া এরআগে কয়েকবার ফোকলোর বিভাগের শিক্ষার্থীদের সাথে খারাপ আচরণ ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উত্যক্ত করেছে ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এ বিষয়ে আমরা আমাদের বিভাগকে মৌখিকভাবে জানালে সমাধানের আশ্বাস দেওয়া হয়। কিন্তু কোনও সুরাহা হয়নি।

তবে ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থীরা বলেন, তাদের ১২১ নং কক্ষটি হস্তগত করতেই ফোকলোর বিভাগের শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন সময় উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবেই তাদের সাথে বাকবিত-ায় জড়িয়ে পড়ে। নাম প্রকাশ না করা শর্তে ইতিহাস বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থী বলেন, ফোকলোর বিভাগের শিক্ষার্থীরা শ্রেণিকক্ষে গোলমাল করার অভিযোগে প্রায়ই তাদের বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসছিলেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ফোকলোর বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. আখতার হোসেন বলেন, ’ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থীরা আমাদের বিভাগের ছেলেমেয়েদের ধাওয়া করেছিল। বিষয়টি আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরকে বলেছি। আমরা প্রক্টর ও উপাচার্যকে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।’

ইতিহাস বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক মু. ময়েজুল ইসলাম বলেন, সকালে আমাদের ছেলেরা ক্লাসের সামনে দাঁড়িয়ে ছিল। তখন তাদেরকে নিষেধ করার জন্য ফোকলোর বিভাগের এক শিক্ষার্থী গিয়েছিল। আর আমাদের শিক্ষার্থী অনেক সমস্যাতো একটু হবেই। আমি ফোকলোর বিভাগের সভাপতিকে বলেছি পরে বিষটি সমাধান করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান বলেন, শুনেছি ইতিহাস বিভাগের সাথে ফোকলোর বিভাগের রুম নিয়ে ঝামেলা হয়েছে। আমি সহকারী প্রক্টর জাহিদকে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে বলেছি। যদি বড় ঝামেলা হয় তাহলে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

পিডিএসও/রানা