দ্বিতীয় দিনেও মেলেনি সাড়া, ঢামেকে অসুস্থ ১৫ শিক্ষক

প্রকাশ : ০১ জানুয়ারি ২০১৮, ২০:০১ | আপডেট : ০১ জানুয়ারি ২০১৮, ২০:২৯

অনলাইন ডেস্ক

দাবি আদায়ে নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের আমরণ অনশন দ্বিতীয় দিন অতিবাহিত হয়েছে। সোমবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে অনশনরত ১৫ জন শিক্ষক অসুস্থ হয়ে পড়লে তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আন্দোলনরত শিক্ষকরা জানিয়েছেন, রোববার সকাল থেকে আমরণ অনশন শুরু করলেও সরকারের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত কোনো সাড়া মেলেনি।

নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার রাতে জানান, আমরা এখনো সরকারের পক্ষ থেকে সাড়া পাইনি। অনশনের কারণে ১৫ জন গুরুতর অসুস্থ হওয়ায় তাদের ঢামেকে ভর্তি করা হয়েছে। অনেকে আবার চিকিৎসা নিয়ে ফিরে এসেছেন।

তিনি বলেন, দুই দিন ধরে খাওয়া-দাওয়া না করার কারণে সবাই প্রচণ্ড রকমের দুর্বল হয়ে পড়েছেন। অনেকে জ্বর-কাশিজনিত কারণে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। বিশেষ করে মহিলারা একটু বেশি দুর্বল হয়ে গেছেন।

গত ২৬ ডিসেম্বর থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান নেন শিক্ষক-কর্মচারীরা। রোববার সকাল ১০টা থেকে তারা আমরণ অনশন শুরু করেন।

আন্দোলনরত শিক্ষকরা জানান, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষার প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে (নিম্ন মাধ্যমিক, মাধ্যমিক, কলেজ, কারিগরি ও মাদ্রাসা) ৯৮ শতাংশ বেসরকারি ব্যবস্থাপনার ওপর নির্ভরশীল।

বিভিন্ন স্তরে বর্তমানে দেশে ৭ হাজারের অধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির অপেক্ষায় আছে, যা এই স্তরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এক-চতুর্থাংশ। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ১ লাখের অধিক কর্মকর্তা-কর্মচারী ২০ লাখের অধিক শিক্ষার্থীকে পাঠদানে নিয়োজিত। এ প্রতিষ্ঠানগুলোতে কর্মরত শিক্ষক-কর্মচারীরা দীর্ঘ ১৫ থেকে ২০ বছর বিনা বেতনে শিক্ষাদান করছেন।

দেশের বিভিন্ন পর্যায়ে ২১ লাখ চাকরিজীবীর বেতন বেড়েছে। প্রতি গ্রেডে বেতন বেড়ে প্রায় দিগুণ হয়েছে। কিন্তু, তারা অবহেলায় পড়ে আছেন।

পিডিএসও/রিহাব