মাদকের প্রবেশ অপ্রতিরোধ্য

প্রকাশ : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৩:৪১

সম্পাদকীয়

মাদককে না বলুন। কেন না বলব! এ প্রশ্নের জবাবে বিশ্বের প্রায় সব জ্ঞানী-গুণী একমত হয়ে বলেছেন এর ভয়াবহ প্রতিক্রিয়ার কথা। বলেছেন, মানবদেহে এর ক্ষতিকর প্রভাবের কথা। কেবল মানবদেহেই নয়, সমাজদেহকে পচিয়ে দেওয়ার ক্ষেত্রেও এর নেতিবাচক ভূমিকার কথা সবারই জানা। তবু বিশ্বের কোথাও সেই মাদকের উৎপাদন এবং বিতরণ থেমে থাকেনি। আমাদের মতো দেশও সেই নেতিবাচক প্রভাবের বাইরে থাকতে পারেনি। আমরাও আক্রান্ত হয়েছি এবং হচ্ছি। সরকার তার চেষ্টার ত্রুটি করেনি। কঠোর প্রতিরোধ ব্যবস্থা গড়ে তোলার কারণে ইতোমধ্যে ইয়াবার প্রবাহ বেশ কিছুটা কমে এলেও নতুন পোশাকে নতুন মাদক প্রবেশ করতে শুরু করেছে।

দেখতে অনেকটা সবুজ চা পাতার মতো। সেবনের নিয়মও চা পানের মতোই। কিন্তু বিষয়টি চা পান নয়। এ এক অন্যরকম নেশা। পান করে নেশায় বুদ হয়ে থাকার মতো। এর চারিত্রিক গুণাবলি অনেকটা ইয়াবার মতো। ইদানীং এ মাদকের কবলে পড়েছে বাংলাদেশ। মাদক আসছে আকাশপথে। বাজারজাত করার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হচ্ছে কুরিয়ার সার্ভিস। দেশে নতুনভাবে আসা মোড়কে এ মাদক ঢাকায় পরিচিতি পেয়েছে খাত বা খাট নামে। চায়ের পাতার মতো দেখতে ওই পাতার প্রকৃত নাম, ‘নিউ সাইকোট্রফিক সাবস্ট্যানসেস’ (এনপিএস)। এটি চিবিয়ে খাওয়ার পাশাপাশি চায়ের মতো পান করা যায়।

তথ্যমতে, গত ৯ সেপ্টেম্বর প্রায় আড়াই কোটি টাকা মূল্যের এনপিএস আটক করেছে সিআইডি। ১৬ কেজি ওজনের ৯৬টি কার্টনে ইথিওপিয়া থেকে ডাকযোগে ঢাকায় পাঠানো হয় এই মাদক। ইয়াবার ধাক্কা সামলাতে না সামলাতেই আবার যেন ঈশান কোণে লাল মেঘের ঝলকানি। ইয়াবার জায়গা পূরণ করতে চলেছে এনপিএস বা খাট। পাললিক ভূমি বলে কথা। নরম মাটিতে পা গাঁড়তে সুবিধা অনেক। একবার পা রাখতে পারলে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির মতো ভারতবর্ষকে গিলে খেতে কতক্ষণ! এখানেও মাদক ব্যবসায়ীরা একই চিন্তায় মাঠে নেমেছেন। মীরজাফর, উর্মিচাঁদ আর জগৎশেঠদের হাতে হাত মিলিয়ে এই পাললিক ভূমিকে তচনছ করা তাদের জন্য খুব একটা কঠিন কর্ম নয় বলেই তাদের বিশ্বাস। তারা তাদের বিশ্বাস নিয়ে থাকবে—এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু আমরা যারা এ দেশের নাগরিক! তারা কি তাদের বিশ্বাসকে বন্ধক রেখে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির সঙ্গে হাত মিলিয়ে জাতি ও রাষ্ট্রের ধ্বংস ডেকে আনবে?

আমরা মনে করি, মীরজাফর, উর্মিচাঁদ ও জগৎশেঠদের মতো কোনো বিশ্বাসঘাতকের ঠাঁই এ দেশে নেই। এ কথা মাথায় রেখেই সরকারকে মাদক দমনে এগিয়ে যেতে হবে। আর আমাদের বিশ্বাস, সরকার আমাদের আশা পূরণে সমর্থ হবেন।

পিডিএসও/হেলাল