আহত ৬, ২৮ গরু ডাকাতি

বন্যা দুর্গত এলাকায় ডাকাতের হামলা!

প্রকাশ : ২১ আগস্ট ২০১৭, ১৩:২১ | আপডেট : ২১ আগস্ট ২০১৭, ১৩:৩০

অনলাইন ডেস্ক
ফাইল ছবি

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বন্যা দুর্গত এলাকা কাপাসিয়া ইউনিয়নের দুর্গম চরাঞ্চলে ডাকাতরা হামলা চালিয়ে ২৮ গরু ডাকাতি করে যাওয়ার সময় এলাকাবাসীর বাধার মুখে পড়লে তাদের ছোড়া গুলিতে ৬ জন আহত হন। 

জানা গেছে, রোববার দিবাগত রাত আনুমানিক সাড়ে ১১টার সময় ভাটি অঞ্চল থেকে দুটি শ্যালো নৌকা যোগে আসা একদল ডাকাত কাপাসিয়া ইউনিয়নের বন্যা দুর্গত বোচাগাড়ি এলাকার আব্দুস সামাদের বাড়িতে হামলা চালায়। তারা সামাদ, রহিম বাদশা, বিলাত মন্ডল, ছকমল ও আব্দুস কুদ্দুস মন্ডলের গোয়াল ঘরে থাকা ২৮টি গরু নৌকায় তুলে নিয়ে যাওয়ার সময় গরু মালিকদের চিৎকারে বোচাগাড়ি ও কাপাসিয়া এলাকার লোকজন নৌকা যোগে ডাকাত দলকে ঘিরে ফেলে। অবস্থা বেগতিক দেখে ডাকাতরা ১৭ রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে গরু নিয়ে ভাটি এলাকায় চলে যায়। ডাকাতদের ছোড়া গুলিতে ৬ জন গুলিবিদ্ধ হন। 

তারা হলেন বোচাগাড়ি গ্রামের ফটিক মিয়ার ছেলে আজাহার মন্ডল, হাতেম মন্ডলের ছেলে রহমত আলী, আজাহার মন্ডলের ছেলে বিশা, কাপাসিয়া গ্রামের মফিজলের ছেলে সিরাজুল, আব্দুল জলিলের ছেলে সিদ্দিক হোসেন ও জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে আনারুল। এদের  মধ্যে আজাহার মন্ডল, রহমত আলী ও বিশার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন সরকার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, প্রতি বছর বন্যায় ডাকাতরা বন্যা দুর্গত এলাকার চরাঞ্চলে মানুষের বসতবাড়িতে  হামলা চালিয়ে শত শত গরু ও মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। থানা অফিসার ইনচার্জ আতিয়ার রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, গরু উদ্ধার ও ডাকাত গ্রেফতারের জন্য চেষ্টা চালানো হচ্ছে। 

পিডিএসও/হেলাল