ঘাতক স্বামী আটক

টঙ্গীতে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশ : ১৫ জুলাই ২০১৭, ১৫:০৩

টঙ্গী প্রতিনিধি

গাজীপুরের টঙ্গীর বড় দেওড়া পরান মণ্ডলের টেক এলাকায় পারিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে স্বামী। শনিবার সকাল সাড়ে ৭টায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম খুকুমনি (২৪)। এ ঘটনায় এলাকাবাসী ঘাতক স্বামী হানিফ হোসেন ওরফে কালাচাঁনকে (৩০) আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে। 

নিহতের বাবা দেলোয়ার হোসেন বলেন, কয়েক বছর পূর্বে ময়নসিংহ জেলার হানিফের কাছে বিয়ে হয়। এ সংসারে মারিয়া আক্তার (৩) নামের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।  বিয়ের পর থেকে সে খুকুমনির উপর নানা ধরনের অত্যাচার শুরু করে। একপর্যায়ে সে নেশায় আসক্ত হয়ে পড়ে এবং চুরি-ডাকাতিতে জড়িয়ে পড়ে। পরে আমরা উপায়ান্তর না পেয়ে মেয়েকে ছাড়িয়ে নিয়ে রানার কাছে বিয়ে দেই। এরপর সে আরও ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে এবং মেয়েকে ভয়ভীতি দেখায় ও মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এরই জের ধরে শনিবার সকালে খুকুমনি ন্যাশনাল পলিমার তার কর্মস্থলে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বের হয়ে পরানমণ্ডলের টেক রাস্তায় পৌঁছলে পূর্ব থেকে উৎপেতে থাকা হানিফ হোসেন বটি দিয়ে উপুর্যপুরি গলা, পেট ও হাতে কোপায়। এতে সে ঘটনাস্থলে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। পরে আশপাশের লোকজন ঘাতক হানিফকে আটক করে গণধোলাই দেয়। খবর পেয়ে টঙ্গী থানার পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার ও হানিফকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। 

টঙ্গী থানার এসআই চন্দন দে বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহত খুকুমনি নেত্রকোনার কেন্দুয়া থানার সাজুরা গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের মেয়ে। সে ওই এলাকার কালামের বাড়ির ভাড়াটিয়া। 

পিডিএসও/হেলাল​