ঘুমে ব্যাঘাত হওয়ায় মাদরাসাছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা!

প্রকাশ : ০৪ নভেম্বর ২০১৯, ১১:৩৪ | আপডেট : ০৪ নভেম্বর ২০১৯, ১২:১২

অনলাইন ডেস্ক
নিহত ছাত্র শুভ হাসান ও পুলিশের হাতে আটক মাদরাসাশিক্ষক আবদুল মুক্তাদির

ঢাকার কেরানীগঞ্জে শুভ হাসান (৭) নামে এক ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে মাদরাসাশিক্ষক আবদুল মুক্তাদিরকে (৩২) আটক করেছে পুলিশ। মুক্তাদির উপজেলার দোলেশ্বর ইসলামিয়া হাফেজিয়া মাদরাসা ও এতিমখানার শিক্ষক। শুভ ওই মাদরাসারই ছাত্র ছিল।

জানা যায়, গেল শুক্রবার রাতে শিক্ষক মুক্তাদিরের কক্ষের পাশেই হইহুল্লোড় করছিল ছাত্র শুভ হাসান, তার ভাই শান্ত হোসেন (৬), জাকির (১০) ও রহমান (৮)। পরে ওই শিক্ষক ক্ষিপ্ত হয়ে ওই চার ছাত্রকে নিজ কক্ষে নিয়ে স্টিলের পাইপ দিয়ে মারধর করেন। এতে শুভ গুরুতর আহত হয়। পরদিন সকালে শুভর খালা ও সহপাঠীরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুভ মারা যায়।

নিহতের খালা ঝুমুর আক্তার বলেন, শুভ ও শান্তর বাবা-মা আলাদা থাকেন। তার বাবা আরেকটি বিয়ে করেছেন। পরে ওদের মা আমার কাছে দুজনকে রেখে সৌদি আরব চলে যান। আমি ওদের দুজনকে লেখাপড়ার জন্য ওই মাদরাসায় ভর্তি করে দেই। তিনি অভিযোগ করেন, ঘুমে ব্যাঘাত হওয়ায় শিক্ষক মুক্তাদির শুভকে পিটিয়ে মেরে ফেলছে।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার এসআই ইমরান উকিল বলেন, এ ঘটনায় শুভর খালা বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে মাদরাসার শিক্ষককে আটক করা হয়েছে। ওই শিক্ষক প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মারধরের কথা স্বীকার করেছেন।

পিডিএসও/হেলাল