চাঁদা না দিলে নির্যাতন চলতো টর্চার সেলে

প্রকাশ : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:২৮

অনলাইন ডেস্ক
যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদের টর্চার সেলে র‌্যাবের অভিযান

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার টর্চার সেল আবিষ্কার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব-৩। র‌্যাব জানায়, টর্চার সেলে মানুষকে আটকে রেখে নির্যাতনের আলামতও পাওয়া গেছে।

র‌্যাব বলছে, কোনো ব্যবসায়ী বা অন্য কেউ চাঁদা দিতে না করলেই ওই টর্চার সেলে নিয়ে তাদের নির্মম নির্যাতন করা হতো।

বুধবার গভীর রাতে রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনের উল্টো দিকে ইস্টার্ন কমলাপুর টাওয়ারে খালেদের এই টর্চার সেলের সন্ধান পাওয়া যায়।

র‌্যাব ৩-এর কমান্ডিং অফিসার (সিও) লেফটেন্যান্ট কর্নেল শফিউল্লাহ বুলবুল বলেন, কেউ চাঁদা না দিলেই টর্চার সেলে নিয়ে নির্মম নির্যাতন চালানো হতো। এই টর্চার সেল উচ্চ মাত্রায় সুদসহ পাওনা টাকা আদায়সহ সব ধরনের কাজে ব্যবহার করা হতো। টর্চার সেলে নির্যাতনের অনেক ধরনের যন্ত্রপাতি রয়েছে।

এর আগে বিকেলে গুলশান-২ এলাকা থেকে যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। পরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে র‌্যাব-৩ কার্যালয়ে নেওয়া হয়।

এর আগে মতিঝিলের ফকিরাপুল এলাকায় তার মালিকাধীন ‘ইয়ংমেন্স ফকিরেরপুল’ ক্লাবের ক্যাসিনোতে অভিযান চালায় র‌্যাব। সেসময় ক্যাসিনো থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থসহ ১৪২ জনকে আটক করা হয়।

পিডিএসও/হেলাল