বিয়ের প্রলোভনে হিন্দু তরুণের ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা মুসলিম স্কুলছাত্রী

প্রকাশ : ০৬ আগস্ট ২০১৯, ২০:০৭

বালিয়াডাঙ্গী (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় বিয়ের আশ্বাস দিয়ে ৫ম শ্রেণির এক ছাত্রীর সঙ্গে একাধিকবার শারীরিক মেলামেশা করার অভিযোগ উঠেছে মোহিন চন্দ্র সিংহ (২৩) নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে। ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী এখন ২৪ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা।

এ ঘটনায় গতকাল সোমবার রাতে অভিযুক্ত যুবক মোহিন, তার ভাই বিদ্যানাথ সিংহ (২১), বাবা প্রফুল্ল চন্দ্র সিংহ (৪৮) এবং মা মিলন বালাকে (৪৫) আসামি করে থানায় মামলা করেছেন ছাত্রীর বাবা।

স্কুলছাত্রীর বাবা জানান, মামলা করার পর থেকে প্রতিনিয়ত তার পরিবারকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। মেয়ের এমন পরিণতির জন্য জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তিনি।

মামলা ও ভুক্তভোগীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে মুসলিম হয়ে বিয়ে করার আশ্বাসে ৩-৪ মাস আগে ৫ম শ্রেণির ছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে মোহিন চন্দ্র সিংহ। গত বছরের ২৫ ডিসেম্বর ছাত্রীকে বাড়িতে একা পেয়ে শারীরিক সম্পর্ক করে। এরপর বিয়ের প্রলোভনে নানা সময়ে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক হয় তাদের মধ্যে। বিষয়টি এলাকায় প্রকাশ হলে মীমাংসার জন্য চাপ দেয় স্থানীয় মোড়লরা।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি মোসাব্বেরুল হক জানান, অভিযোগ দায়ের করার পর স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষা করানো হয়েচে। অন্তঃসত্ত্বার প্রমাণ পাওয়ায় সোমবার রাতে মামলা রুজু করা হয়। মামলার ৩ নম্বর আসামি অভিযুক্ত ওই যুবকের বাবাকে গ্রেফতার করে মঙ্গলবার দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

পিডিএসও/তাজ