মায়ের হাতে মেয়ে খুন

প্রকাশ : ১৭ জুন ২০১৯, ১৩:২১

অনলাইন ডেস্ক
নিহত শিশু সিনহার মরদেহ

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার মুন্সিগঞ্জের সোনাতনপুরে এক মা তার দুই বছরের মেয়েকে বটি দিয়ে জবাই করে খুন করার অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার সকাল ৮টার দিকে ঘরের বারান্দায় শিশুটিকে জবাই করেন মা শামিমা আকতার। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে। ওই বাড়ি থেকেই শামিমা আকতারকে পুলিশ আটক করেছে।

নিহত শিশু সিনহা মুন্সিগঞ্জের সোনাতনপুরের মামুন মিয়ার মেয়ে। মামুন মিয়ার আরো দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

প্রতিবেশীরা জানায়, প্রায় ১৫ বছর আগে মুন্সিগঞ্জের সোনাতনপুরের মৃত মঞ্জিল হোসেনের ছেলে মামুনের সাথে চুয়াডাঙ্গার আকুন্দবাড়িয়ার শামিমার বিয়ে হয়। তাদের সংসারে তিনটি কন্যা সন্তান রয়েছে। বড় মেয়ের বয়স পনের বছর।

তারা জানান, সকালে হঠাৎ বাড়িটিতে কান্নাকাটির সংবাদ শুনে প্রতিবেশীরা সেখানে যান। তারা দেখতে পান ছোট্ট শিশু সিনহার গলাকাটা মরদেহ বারান্দায় পড়ে আছে। মরদেহের পাশেই নির্বাক দাঁড়িয়ে আছেন মা শামীমা। পরে সংবাদ পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ সময় শামীমাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। প্রতিবেশীরা আরো জানায়, শামীমার মানসিক সমস্যা রয়েছে।

মৃত শিশুর বাবা মামুন মিয়া জানান, সকালে তিনি সিনহাকে রেখে বাজারে যান। কিছুক্ষণ পর জানতে পারেন মেয়েকে খুন করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান মুন্সি বলেন, শিশুটির লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। মা শামীমাকে আটক করা হয়েছে। নিহত শিশুর বাবা মামুন তার স্ত্রী শামীমাকে আসামি করে একটি মামলা করেছেন।

পিডিএসও/হেলাল