পুত্রবধূকে ধর্ষণ চেষ্টায় শ্বশুর গ্রেফতার

প্রকাশ : ২৯ মে ২০১৯, ১৫:৫০

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি

ঢাকার ধামরাই উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের ইন্দরা গ্রামে পুত্রবধূকে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে শ্বশুর আমির হোসেনের (৬০) বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় পুত্রবধূ বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে মঙ্গলবার রাতে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত আমির হোসেনের বাড়ি ধামরাই উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের ইন্দরা গ্রামের মৃত মুনছের দফাদারের ছেলে। সে পেশায় একজন গ্রাম্য সার্ভেয়ার।

এ বিষয়ে পুত্রবধূ থেকে জানা যায়, গত রোববার আমার শাশুড়ি আমাদের এক আত্মীয় বাড়িতে বেড়াতে গেলে রাত ১০টার দিকে আমার ছেলেকে নিয়ে শুয়ে পড়ি। তখন আমার শ্বশুর আমির হোসেন আমাকে ডেকে বলে আম খাবেন। তখন আমি ঘুম থেকে উঠে আম কেটে দেই। আমার শ্বশুর আম খাওয়া শেষে আমাকে ঘুমাতে যেতে বলে।পরে আমি ঘরের নিচ তলায় গিয়ে শুয়ে পড়ি। কিছুক্ষণ পরে আমার শ্বশুর আমাকে দ্বিতীয় বারের মত ডাকে। আমি তখন ঘুম থেকে উঠে দরজা খুলে দেই। 

এ সময় তিনি ঘরে ঢুকেই কিছু বুঝে উঠার আগেই আমাকে জড়িযে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করে। তখন আমি ও আমার ছেলে চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এসে পড়ে। ততক্ষণে আমার শ্বশুর ঘর থেকে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনা রাতেই আমার প্রবাসী স্বামীকে মোবাইল ফোনেজানাই। তখন আমার স্বামী পরদিন বিদেশ থেকে বাংলাদেশে চলে আসে।

এ ব্যাপারে ধামরাই থানার কাওয়ালীপাড়া তদন্ত কেন্দ্রের ইনর্চাজ (এস আই) মোঃ কামরুজ্জামান বলেন, গত রোববার রাতে পুত্রবধুকে ধর্ষণের চেষ্টা করে শ্বশুর আমির হেসেন। এই ঘটনায় ভুক্তভোগী পুত্রবধূ বাদী হয়ে ধামরাই থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

পরে পুলিশ মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে আমির হোসেনকে ইন্দরা গ্রাম এলাকা থেকে গ্রেফতার করে।

পিডিএসও/তাজ