পলাশে র‌্যাবের অভিযানে আনসারুল্লাহর ২ জঙ্গি সদস্য আটক

প্রকাশ : ১৬ মার্চ ২০১৯, ২১:১১ | আপডেট : ১৬ মার্চ ২০১৯, ২১:২৯

পলাশ (নরসিংদী) প্রতিনিধি

নরসিংদীর পলাশ উপজেলা থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের (আনসারুল্লাহ বাংলা টিম) ২ জঙ্গি সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব-১১। 

শনিবার ভোরে পলাশ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। আটকের পর র‌্যাব-১১ তাদের কাছ থেকে ল্যাপটপসহ বিপুল পরিমাণ উগ্রবাদী বই এবং জঙ্গিবাদী লিফলেট উদ্ধার করে। আটককৃতদের পরিচয়, মোহাম্মদ শিহাব উদ্দিন ওরফে সৌরভ (২৪) ও মাহাদী হাসান ওরফে রাশেদুল ইসলাম রাশেদ (২২)। 

শনিবার সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জের আদমজী র‌্যাব-১১ এর কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাবের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-১১ এর এএসপি আলেপউদ্দিন জানান, মোহাম্মদ শিহাব উদ্দিন ওরফে সৌরভ গত ২০১৬ সাল হতে নরসিংদীর পলাশে একটি বেসরকারি কোম্পানিতে ম্যাকানিকাল ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কর্মরত আছে। সে ২০১৩ সালে অধ্যায়নরত অবস্থায় জসিম উদ্দিন রাহমানির লেকচার শুনে উগ্রবাদী চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়।

পরবর্তীতে কথিত বড়ভাইয়ের মাধ্যমে ২০১৬ সালে আনসার আল ইসলাম (আনসারুল্লাহ বাংলা টিম) এ যোগদান করে। ২০১৮ সালে নরসিংদীর পলাশে একটি বেসরকারি কোম্পানিতে চাকুরি করাকালীন আনসার আল ইসলামের কয়েকটি সেলের সমন্বয়ক এর দায়িত্ব পায়। সংগঠনের সদস্য সংখ্যা বাড়ানোর জন্য অসংখ্য ভুয়া ফেসবুক আইডি, টেলিগ্রাম, প্রটেকটেড টেক্ট, টর ব্রাউজার ইত্যাদি অ্যাপস ব্যবহার করতো।

সেইসঙ্গে অনলাইনে আনোয়ার আল আওলাকি, আব্দুল্লাহ আয্যাম, জসিম উদ্দিন রাহমানি সহ বিশ্বের বিভিন্ন উগ্রবাদী লেখকদের লেখাগুলো সম্পর্কে ব্যাপক স্টাডি করে নিজেই উগ্রবাদী নোটসিট তৈরি করে তার নিজস্ব কম্পিউটার ও প্রিন্টারের মাধ্যমে প্রিন্ট করে সংগঠনের সদস্যদের কাছে বিতরণ করতো বলে সে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে। 

সে আরো জানায় যে, তার নেতৃত্বে নরসিংদীর পলাশে আনসার আল ইসলামের বিভিন্ন গোপন বৈঠক অনুষ্ঠিত হত, সেখানে মিলিত হওয়ার জন্য দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে সংগঠনের সদস্যরা আসতো।

এছাড়া তার মাধ্যমেই মাহাদী হাসান ওরফে রাশেদুল ইসলাম রাশেদ গত ৪ মাস আগে আনসার আল ইসলামে যোগদান করে। রাশেদ মূলত আনসার আল ইসলামের দাওয়াত পাওয়ার পরে ফেসবুকের মাধ্যমে বিভিন্ন উগ্রবাদী মতবাদ প্রচার ও দাওয়াতী কাজ করতো।

পিডিএসও/তাজ