জজ ও ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দানকারী ৫ প্রতারক গ্রেপ্তার

প্রকাশ : ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৫:০৪ | আপডেট : ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৫:১৬

গাজীপুর প্রতিনিধি
ama ami

গাজীপুরে ভূয়া জজ ও চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দানকারী প্রতারক চক্রের ৩ নারীসহ ৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১ এর সদস্যরা। শুত্রবার র‌্যাব-১ গাজীপুরের পোড়াবাড়ী ক্যাম্প এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায়। 

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, টাঙ্গাইলের ধনবাড়ি থানার বলিভদ্র এলাকার মোঃ শাহজাহানের ছেলে মাসুদ রানা (৩৫), মাসুদ রানার স্ত্রী গুলশান আরা লিজা (২৮), ভূয়াপুর থানার মাটিকাটা এলাকার নাজির হোসেনের ছেলে রাজু আহম্মেদ(৪০), রাজু আহম্মেদের স্ত্রী আকলিমা আক্তার (২৫) ও পাবনা সদরের ভারেলা খাঁপাড়া এলাকার মোসলেম উদ্দিন সরদারের মেয়ে তাছলিমা খাতুন।

র‌্যাব জানায়, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সোয়া ১২টার দিকে র‌্যাব-১ এর গাজীপুর পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে সিটি করপোরেশনের বাইমাইল এলাকার জনৈক নুরুল ইসলামের ৬ তলা বাসার একটি ফ্লাটে ভূয়া জেলা জজ ও চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট পরিচয় দানকারী একটি চক্র অবস্থান করছে। পরে ওই ফ্লাটে অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের ৫ সদস্যকে ১৪ টি মোবাইল ফোনসহ গ্রেপ্তার করে।

র‌্যাব আরো জানায়, ধৃত আসামিরা জিজ্ঞাসাবাদে নিজেদেরকে প্রতারক চক্রের সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকার করে জানায়, তারা নিজেদেরকে বিভিন্ন সময় ভূয়া জেলা জজ ও চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ও জেলা প্রশাসক পরিচয় দিয়ে সিটি কর্পোরেশনের মেয়র, জেলা প্রশাসক, সিভিল সার্জন, ঊর্ধ্বতন বন কর্মকর্তা, ম্যানেজার জাতীয় ভাওয়াল উদ্যান, বিভাগীয় বন কর্মকর্তা, রেঞ্জ কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি কর্মকর্তাদের বিভিন্ন সময়ে হুমকি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নেয়।

এছাড়া তারা বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নম্বর সংগ্রহ করে, কখনো চীফ জুড়িশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, কখনো জেলা প্রশাসক, কখনো জেলা জজ, আবার কখনো সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন মিল কারখানার মালিক এবং নিরীহ মানুষদেরকে হয়রানি করে আসছিল।

পিডিএসও/তাজ