নকলে ব্যস্ত শিক্ষার্থী, শিক্ষকের ২ বছরের কারাদণ্ড

প্রকাশ : ০৮ নভেম্বর ২০১৮, ১৭:৫৭ | আপডেট : ০৮ নভেম্বর ২০১৮, ১৭:৫৯

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি

পরীক্ষার সময় প্রায় শেষ মূহুর্তে। দাড়িয়ে থেকে ছাত্রীর নকলে সহযোগিতা করছিলেন শিক্ষক (কক্ষ পরিদর্শক) হেলাল উদ্দিন। এমন সময় হঠাৎ হলে প্রবেশ করেন কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসার জিন্নাত শারমিন। মূহুর্তেই নকলে সহযোগিতা করা ওই শিক্ষক চমকে ওঠে। হাতে লেখা একটি গণিতের সমাধানসহ ছাত্রীকে ধরে ফেলেন শারমিন। 

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে নকলে সহযোগিতা করার অপরাধে গোসিংঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের ওই সহকারী শিক্ষককে ২ বছরের কারাদণ্ড দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেহেনা আকতার। একই সঙ্গে ওই হলের কর্তব্যরত হল পরিদর্শক ফেরদৌসি বেগমকে আজীবন পরীক্ষা কেন্দ্রের দায়িত্ব থেকে বহিস্কার ও খোজেখানি বিদ্যালয়ের নকল করা পরীক্ষার্থী রোনা আক্তারকে এক বছরের জন্য বহিস্কার করা হয়। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে গাজীপুরের শ্রীপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় জেএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা ঘটে। 

পিডিএসও/অপূর্ব