শাহজালালে ইয়াবা-সিগারেটসহ ২ যাত্রী আটক

প্রকাশ : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১:০৯

অনলাইন ডেস্ক

হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৃথক অভিযানে ৩২ লাখ টাকার ইয়াবা ও আমদানি নিষিদ্ধ বিদেশি সিগারেটসহ দুই যাত্রীকে আটক করেছে শুল্ক গোয়েন্দা। অভিযানে কক্সবাজার থেকে আসা জাহাঙ্গীর ও জিয়াউর নামে দুজন যাত্রীর কাছ থেকে ৪ হাজার ইয়াবা ও কুয়েত থেকে একটি বিমানে আসা লাগেজ থেকে ৪১ হাজার ২০০ শলাকা বিদেশি সিগারেট উদ্ধার করা হয়। বুধবার শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের  মহাপরিচালক ড. মো. সহিদুল ইসলাম এসব তথ্য জানিয়েছেন।

শুল্ক গোয়েন্দা জানায়, মঙ্গলবার ডোমেস্টিক আগমনী এলাকায় অভিযান চালিয়ে ইয়াবা ও সিগারেট জব্দ করা হয়। কক্সবাজার থেকে আসা ভিকিউ-৯৩২ বিমানের যাত্রীদের আগে থেকেই নজরদারীতে রাখা হয়৷ ডোমেস্টিক এলাকা অতিক্রম করার সময় শুল্ক গোয়েন্দা দল তাদেরকে আটক করে। সুনিশ্চিত তথ্য থাকার পরেও জিজ্ঞাসাবাদে যাত্রীরা ইয়াবা বহনের বিষয়টি অস্বীকার করেন। পরবর্তীতে যাত্রীদের কাস্টমস আগমনী হলের ব্যাগেজ কাউন্টারে এনে বিমানবন্দরে কর্মরত বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে যাত্রীর দেহ তল্লাশী করা হয়। শারীরিক অসংলগ্ন চিহ্ন পাওয়ায় রুটি কলা ও প্যাকেট জুস খেতে দিয়ে বিশেষ কায়দায় পায়ুপথ দিয়ে  ৪০টি ছোট প্যাকেট বের করে আনতে বাধ্য করা হয় যাত্রী জাহাঙ্গীর আলমকে। তার রেন্টাম থেকে ২০০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

অপর যাত্রী  জিয়াউর রহমানকে ডাক্তারের  উপস্তিতিতে নানা কসরত করিয়েও পেটের অভ্যন্তরে রক্ষিত ইয়াবা বের না হওয়ায় তার  লিখিত স্বীকারোক্তি অনুযায়ী পেটের অভ্যন্তরে ২০০০ পিস ইয়াবাসহ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কাছে হস্তান্তর করা হয়। জব্দকৃত ইয়াবার মোট বাজারমূল্য প্রায়  ২০ লাখ টাকা। এসব পণ্যের বিষয়ে শুল্ক আইন ১৯৬৯ ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইন ১৯৯০ অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অন্যদিকে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মধ্যরাতে অভিযান চালিয়ে আমদানি নিষিদ্ধ ৪১ হাজার ২০০ শলাকা বিদেশি সিগারেট জব্দ করা হয়। এগুলো ২০৬ কার্টনে পাওয়া যায়। যার বর্তমান বাজার মূল্য ১২ লাখ ৩৬ হাজার টাকা। কুয়েত থেকে আসা কিউ ২৮৩ বিমানে মধ্যরাতে বিমানবন্দরে অবতরণ করে। বিমানবন্দরে ২ নংম্বর ব্যাগেজ বেল্ট থেকে লাগেজ সংগ্রহ করে সকল যাত্রী চলে যাবার পর দুটি লাগেজ ব্যাগেজ বেল্ট থেকে মালিকবিহীন পরিত্যক্ত অবস্থায় শুল্ক গোয়েন্দা জব্দ করে। জব্দকৃত সিগারেট ডানহিল ও ৩০৩ ব্র্যান্ডের। এ পণ্যের বিষয়ে শুল্ক আইনে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

পিডিএসও/হেলাল