মোবাইল চুরির নাটক, ২ কিশোরী গণধর্ষণের শিকার

প্রকাশ : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:০৮

অনলাইন ডেস্ক

মোবাইল চুরির অপবাধে চট্টগ্রাম মহানগররের নিউ মার্কেটস্থ জলসা মার্কেটের ছাদে নিয়ে দু’কিশোরীকে গণধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার রাতে এ ঘটনার পরপর ৬ যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সিএমপির কোতোয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন এই খবর নিশ্চিত করেন জানান, গ্রেফতার হওয়া যুবকরা হলেন— আবদুল আউয়াল ওরফে ডালিম (৩০), ফারুক (২৭), কবির (২৭), জাহাঙ্গীর আলম (২৪), বাবলু (২৮), সেলিম (৩৫)।

এ ঘটনায় জড়িত এনাম (২৭) ও রুবেল (২৫) নামের দু’যুবক পলাতক আছেন।

থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ বলেন, জলসা মার্কেটে আগ থেকেই চাকরি করতেন ১৭ বছরের এক তরুণী। ওই মার্কেটের ৫ম তলার জয়ন্তী বোরকা হাউসের মালিক রাশেদ তাকে বলেন, তার দোকানের জন্য একজন কর্মচারী লাগবে। সে হিসেবে ওই তরুণী রোববার দুপুর ২টার দিকে ১৬ বছর বয়সী তার এক বান্ধবীকে চাকরি দেয়ার জন্য নিয়ে যান।

তিনি বলেন, রাশেদের দোকানের এক মেয়ের মোবাইল হারিয়ে গেছে এই অপবাদে ওই দুই কিশোরীকে আটকায় ডালিম ও সেলিম।

ওসি মহসীন বলেন, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে সালিশের কথা বলে ওই দু’কিশোরীকে মার্কেটের ৯ম তলার ছাদে নিয়ে যায়। এরপর আটজনই পালাক্রমে তাদের জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

এদিকে, দীর্ঘক্ষণ পরও ঘরে না ফেরা কিশোরীদের একজনের মা রাত সাড়ে ১০টার দিকে ওই মার্কেটে যান। সেখানে গিয়ে জলসা মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির লোকজনদের সহায়তায় মার্কেটের ছাদে গিয়ে তার মেয়ে ও মেয়ের বান্ধবীর খোঁজ পান। ওই সময় তারা দু’জনই অসুস্থ অবস্থায় সেখানে পড়ে ছিল।

এই ঘটনায় সিএমপির কোতোয়ালী থানায় আটজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। দু’কিশোরীকে চিকিৎসা ও ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টফ ক্রাইসিস সেন্টারে।

পিডিএসও/রিহাব