লোহাগড়ায় বিষ দিয়ে ৫ লাখ টাকার মাছ নিধন

প্রকাশ | ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:২১

লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি

নড়াইলের লোহাগড়ায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রিপন মোল্যা নামে এক মৎস্য ব্যবসায়ীর পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে প্রায় পাঁচ লাখ টাকার মাছ নিধন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার রাতে উপজেলার বাগডাঙ্গা-সারোল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযোগে জানা গেছে, দিঘলিয়া ইউনিয়নের বাগডাঙ্গা-সারোল গ্রামস্থ নড়াইল জেলা পরিষদের পুকুর লিজ নেন জেলা পরিষদের সদস্য ও দিঘলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের প্রয়াত চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান পলাশের বড় ভাই মুক্তিযোদ্ধা সাইফুর রহমান হিলু। ওই মাছের ঘেরে মাছ চাষ করেছেন সাইফুর রহমান হিলুর ভাগ্নে কুমড়ি পশ্চিমপাড়া গ্রামের মৃত সব্দার মোল্যার ছেলে রিপন মোল্যা।

শনিবার দিবাগত রাতে রিপন মোল্যার পুকুরে গ্রামের প্রতিপক্ষরা বিষ প্রয়োগ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। রিপন মোল্যা জানান, সম্প্রতি আমার মামা দিঘলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান পলাশকে গ্রামের প্রতিপক্ষরা হত্যা করে। আমি এ ঘটনার পর মামার পরিবারকে সহযোগিতা করায় আসামীরা আমার উপর ক্ষুব্ধ ছিল। কিছুদিন আগে আসামীরা আমাকেও হত্যার পরিকল্পনা করে ব্যর্থ হয়। পলাশ চেয়ারম্যান হত্যা মামলার আসামিরাই আমার মাছের ঘেরে (পুকুরে) বিষ প্রয়োগ করেছে। বিষ প্রয়োগের ফলে রুই, কাতল, পুঠি, মিনারকাপ, তেলাপিয়াসহ নানা প্রজাতির মাছ মরে ভেসে উঠেছে।

লোহাগড়া থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) সাইফুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জানান, এ বিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

পিডিএসও/এআই