হোটেলে এদের আগমন কেন?

প্রকাশ : ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২০:৪৪

অনলাইন ডেস্ক
ama ami

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে দুটি আবাসিক হোটেলে অভিযান চালায় ডিবি পুলিশ। এ সময় পুলিশ অসামাজিক কার্যকলাপে জড়িত ১০ নারীসহ ১৮ জনকে আটক করেছে। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে ভৈরব বাজারের হোটেল শৈবাল ও হোটেল সোনালীতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা করা হয়।

কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শফিকুল ইসলাম জানান, ভৈরবের ওই দুটি হোটেলে দীর্ঘদিন যাবৎ অসামাজিক কার্যকলাপ চলছিল। পুলিশ সুপারের নির্দেশে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়। হোটেল মালিকরা মানবপাচারে জড়িত, সেটা নিশ্চিত হওয়া গেছে।

অসমাজিক কাজে জড়িতরা হলেন- শৈবাল হোটেলের (আবাসিক) মালিক মোস্তাক আহমেদ হান্নান, তার বন্ধু সোহেল মিয়া, ম্যানেজার মফিজ উদ্দিন, যৌনকর্মী শিখা বেগম (৩০), শিলা খাতুন ( ৩৪), সাফিয়া বেগম (২৭), উর্মি বেগম (২০), লাভলী বেগম (২৭), খদ্দের মাসুদ (৩৫), পায়েল খাতুন (২৮), স্বপ্না বেগম (২৩), তাসলিমা (৩২), সুমী বেগম (২৪), মুন্নি বেগম (২৪), আতাউর (৩৩), তানভির (৪০), আবু সালেক (৪২) ও রওশন আলী (৩২)।

আটকদের বিরুদ্ধে মানবপাচার প্রতিরোধ আইনে ডিবি পুলিশ পৃথক দুটি মামলা করেছে।

পিডিএসও/রিহাব