প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় ছুরিকাঘাত

প্রকাশ : ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২০:২৮

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় তুলি(১৫) নামের নবম শেণীর এক ছাত্রীকে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে।

শনিবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে স্কুলে যাওয়ার পথে স্থানীয় বখাটে নাইম (১৮) তাকে ছুরিকাঘাত করে। স্থানীয়রা প্রথমে তুলিকে উদ্বার করে কলাপাড়া হাসপাতালে নিয়ে এলে অবস্থার অবনতি হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এদিকে বখাটে নাইম পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় জনতা তাকে আটক করে মহিপুর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। 

স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘদিন ধরে তুলিকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল স্থানীয় বখাটে নাঈম। প্রতিদিনের মতো শনিবার স্কুলে যাওয়ার পথে বখাটে নাইম তুলির পথ আটকে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। তুলি রাজী না হলে তাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। স্থানীয়রা তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। 

নাইম ধুলাসর এলাকার সোলায়মানের পুত্র। আহত শিক্ষার্থী উপজেলার ধুলাসার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর ছাত্রী। সে ওই গ্রামের নিজাম উদ্দিন হাওলাদারের মেয়ে।

ধুলাসর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইব্রাহীম জানান, নাইমের বিরুদ্ধে বখাটেপনা ও উক্তত্ত করা নিয়ে বেশ কয়েকবার শালিস বৈঠক হয়েছে। 

কলাপাড়া হাসপাতালের চিকিৎসক জে এইচ খান লেলিন জানান, নাভির নিচে ছুড়িকাঘাত করা হয়েছে। এতে অতিরিক্ত রক্তক্ষরন হয়। দুই ব্যাগ রক্ত দিয়ে সাথে সাথে বরিশাল মেডিকেলে রেফার করা হয়েছে।

মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান প্রতিদিনের সংবাদকে জানান, বখাটে নাইম আটক রয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।


পিডিএসও/ এআই