বিএনপি-জামায়াতের ৫৮ নেতাকর্মী আটক, ককটেল উদ্ধারের দাবি পুলিশের

প্রকাশ : ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২০:০৫

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়া জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে পৌর কাউন্সিলরসহ বিএনপি ও জামায়াতের ৫৮ জন নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশের দাবি, অভিযানকালে আটককৃতদের কাছ থেকে ৬২টি ককটেল উদ্ধার করা হয়েছে। 

শুক্রবার দিবাগত গভীর রাত থেকে শনিবার ভোর পর্যন্ত জেলাজুড়ে এ অভিযান চালানো হয় বলে জেলা পুলিশ সূত্র নিশ্চিত করেছে। 

জেলা পুলিশের নিয়ন্ত্রন কক্ষ থেকে প্রাপ্ত সূত্রে জানা যায়, অভিযানকালে কুষ্টিয়া মডেল থানা পুলিশ ১২ জন, কুমারখালী থানা পুলিশ ১১ জন, দৌলতপুরে ১৪ জন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানায় ১১ জন, মিরপুরে ৪ জন, ভেড়ামারায় ৪ জন ও খোকসা থানার পুলিশ ২ জনকে আটক করেছে। 

আটককৃতদের মধ্যে বিএনপি ও জামায়াতের কয়েকজন নেতাও রয়েছেন। তাদের মধ্যে কুমারখালী ইউনিয়ন জামায়াতের সভাপতিসহ ছয় শুরা সদস্য, জেলা যুবদলের সাবেক সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক ও কুষ্টিয়া পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মহিউদ্দীন চৌধুরী মিলন রয়েছেন।

কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ কে এম জহিরুল ইসলাম প্রতিদিনের সংবাদকে জানান, নাশকতার প্রস্তুতির অভিযোগে আটককৃতদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় সাতটি মামলা করা হয়েছে। এসব মামলায় আসামি করা হয়েছে ১৪৩ জনকে। অজ্ঞাত আসামিও রয়েছে। আটক ব্যক্তিদের এসব মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। 

তবে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সোহরাব উদ্দীনের অভিযোগ, ‘আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে নেতা-কর্মীদের আটক করে আতঙ্ক সৃষ্টি করা হচ্ছে। এভাবে অহেতুক নেতা-কর্মীদের আটক করে গনতান্ত্রিক আন্দোলনকে দমানো যাবে না।’

পিডিএসও/ এআই