কলাপাড়ায় স্কুলছাত্রী ধর্ষণ ও খুন, সৎমা গ্রেফতার

প্রকাশ : ১৭ আগস্ট ২০১৮, ২০:৩৫ | আপডেট : ১৭ আগস্ট ২০১৮, ২০:৪১

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি

কলাপাড়ার মহিপুর সেরাজপুর গ্রামের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে সৎমা সালমা বেগমকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক রাখলেও বৃস্পতিবার রাতে তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে শুক্রবার ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে কলাপাড়া উপজেলা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রেরণ করা হয়। এ মামলায় পুলিশ কাওসার ঘরামী (২২) এক যুবককে বৃহস্পতিবার দুপুরে গ্রেফতার করে। তাকেও আদালতে প্রেরণ করে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ। তবে আদালত কোন নির্দেশনা দেননি বলে মহিপুর থানার এসআই হাফিজুর রহমান জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে একদল অজ্ঞাত দুর্বৃত্ত নিহত ছাত্রীর ঘরে প্রবেশ করে পালাক্রমে ধর্ষণ করলে অচেতন হয়ে পড়ে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কুয়াকাটা হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যায়। বর্বর ও নৃশংস হত্যাকান্ডের এ ঘটনার পরে এলাকার লোকজন আতঙ্ক আর উৎকন্ঠায় রয়েছেন।

এ ঘটনার পর থেকে নিহত ছাত্রীর সৎমা সালমা বেগমকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক রাখে। বুধবার নিহত ছাত্রীর বাবা ইসমাইল ঘরামী অজ্ঞাত ৪/৫ জনকে আসামি করে ধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগে একটি মামলা করেছেন। নিহত শিশুটি মহিপুর কো-অপারেটিভ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। সৎমাকে গ্রেফতারের ঘটনায় এলাকায় চলছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

পিডিএসও/রানা